বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
Homeজাতীয়কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম কারাগারে ওসি প্রদীপ

কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম কারাগারে ওসি প্রদীপ

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: দুদকের দায়ের করা অবৈধ সম্পদ অর্জন মামলায় হাজির করতে টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। শনিবার সকাল পৌণে ৯টার দিকে কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানান কক্সবাজার জেলা কারাগারের সুপার মো. মোকাম্মেল হোসেন।

জেল সুপার জানান, আগামী সোমবার প্রদীপ কুমার দাশকে দুদকের মামলায় আদালতে হাজির করা হবে। সে জন্য তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই কয়েকদিন ওসি প্রদীপ চট্টগ্রাম কারাগারে থাকবেন।

তিনি আরও জানান, ওসি প্রদীপ মূলত চট্টগ্রাম কারাগারে কয়দিন থাকবেন এটা আদালতের আদেশের উপর নির্ভর করছে।

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় কারাগারে থাকা বরখাস্ত ওসি প্রদীপ ও তার স্ত্রী চুমকি বিরুদ্ধে গত ২৩ আগস্ট প্রায় চার কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করেছিল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এর মধ্যে ৩ কোটি ৯৫ লাখ ৫ হাজার ৬৩৫ টাকা ওসি প্রদীপ ঘুষ-দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জন করেছেন বলে দুদক অভিযোগ এনেছে। আরও ১৩ লাখ ১৩ হাজার ১৭৫ টাকার সম্পদের তথ্য বিবরণীতে গোপন করার অভিযোগও আনা হয়েছে চুমকির বিরুদ্ধে।

প্রদীপ ঘুষ-দুর্নীতির মাধ্যমে সম্পদ অর্জন করে স্ত্রীর নামে হস্তান্তর করেছেন বলেও দুদকের অনুসন্ধান প্রতিবেদন এবং এজাহারে বলা হয়েছে।

দুদকের চট্টগ্রাম জেলা সমন্বিত কার্যালয়-২ এর সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন। ঘটনাস্থল বিবেচনায় মামলাটি করা হয়েছে দুদকের চট্টগ্রাম জেলা সমন্বিত কার্যালয়-১ এ। মামলা নম্বর ১১। সেই মামলায় ১৪ সেপ্টেম্বর ওসি প্রদীপকে আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রদীপ কুমার দাশ চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার সারোয়াতলী ইউনিয়নের উত্তর সারোয়াতলী গ্রামের মৃত হরেন্দ্র লাল দাশের ছেলে। চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানার পাথরঘাটা আর সি চার্চ রোডে তাদের নিজস্ব একটি আবাসিক ভবন আছে। সেই ভবনে তার স্ত্রী চুমকি সন্তানদের নিয়ে বসবাস করতেন।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments