জয়নাল আবেদীন: সারা দেশে ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে মাধ্যমে মসজিদগুলো উদ্বোধন করেন ।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে, ধর্মীয় ভুল ব্যাখ্যা দূর করে ইসলামের সঠিক বার্তা সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে সরকার দেশব্যাপী মোট ৫৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণ করছে। মসজিদগুলো ঢাকার সাভার উপজেলা, ফরিদপুরের মধুখালী ও সালথা উপজেলা, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া ও কুলিয়ারচর উপজেলা, মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলা, রাজবাড়ি সদর উপজেলা, শরিয়তপুর সদর ও গোসাইহাট উপজেলা, বগুড়ার শারিয়াকান্দি, শেরপুর ও কাহালু উপজেলা, নওগাঁর সাপাহার ও পরশা উপজেলা সিরাজগঞ্জ জেলা ও সদর উপজেলা, পাবনার চাটমোহর উপজেলা, রাজশাহীর গোদাগারি ও পাবা উপজেলা, দিনাজপুরের খানসামা ও বিরোল উপজেলা, লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলা, পঞ্চগড় সদর ও দেবীগঞ্জ উপজেলা, রংপুর জেলা, সদর উপজেলা, মিঠাপুকুর, পীরগঞ্জ ও বদরগঞ্জ উপজেলা, ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলা, নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলা, ময়মনসিংহের গফরগাঁও ও তারাকা উপজেলা, চট্টগ্রাম জেলা, লোহাগড়া, মীরসরাইর ও সন্দ্বীপ উপজেলা, জামালপুর সদর ও ইসলামপুর উপজেলা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও বিজয়নগর উপজেলা, ভোলা সদর, সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলা, কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা, খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলা, কুষ্টিয়া সদর, খুলনা জেলা, চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা, ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা এবং চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় নির্মিত হয়েছে। বাংলাদেশের স্থপতি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে চলতি বছরের শেষ নাগাদ আরও ১০০টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন করা হবে। দেশে যুগান্তকারী ৫শ৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৫০টির মতো মসজিদ নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। এটা বিশ্বের বৃহত্তম মসজিদ প্রকল্প হতে যাচ্ছে। সেপ্টেম্বরে দ্বিতীয় ও ডিসেম্বরে তৃতীয় পর্যায়ে আরও ৫০টি মসজিদ উদ্বোধন করা হবে। ইসলামের আদর্শের সঙ্গে মিল রেখে এবং জাতির পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশব্যাপী ৮ হাজার ৭শ২২ কোটি টাকা ব্যয়ে এই ৫শ৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণের কথা চিন্তা করেন। বিশ্বে এই প্রথম কোনো সরকার একসাথে এত সংখ্যক মসজিদ কমপ্লেক্স নির্মাণ করছে। ‘ইসলামে উগ্রবাদ ও জঙ্গিবাদের কোনো ঠাঁই নেই’ জানিয়ে ইসলামী মূল্যবোধ ও মুসলিম ভ্রাতৃত্ববোধের প্রচারণার পাশাপাশি জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদের বিরুদ্ধে ইসলামের মূল বাণী প্রচার করাই এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য। পদ্মা বহুমুখী সেতুর পর, নিজস্ব অর্থায়নে এটা সরকারের দ্বিতীয় বৃহত্তম প্রকল্প। বিশ্বে এই প্রথম কোনো সরকার একসেঙ্গ এই বিপুল সংখ্যক মসজিদ কমপ্লেক্স নির্মাণ করছে। প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ৫শ৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন প্রকল্প করা হবে। সারা দেশে ৫০টির মধ্যে রংপুরের মিঠপিুকুর , পীরগঞ্জ, বদরগঞ্জ , রংপুর সদর উপজেলা এবং জেলা সদর । এর মধ্যে বদরগঞ্জের মসজিদ উদ্ধোধনে সংযুক্ত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ডিউক চৌধুরী,বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল ওহাব ভুঞা, ডিআইজি দে;বদাস ভট্রাচার্য, জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, পুলিশ সুপার, বিপ্লব কুমার সরকার জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ । বদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসান অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন । বাদ আসর রংপুর জেলা সদর মসজিদে মিলা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জেলা প্রশাসন ।

Previous articleচাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে গাঁজার গাছসহ আটক ১
Next articleমুলাদীতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবীতে মানববন্ধন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।