বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আসন্ন ঈদকে কেন্দ্র করে চতুর্থ দিনের মতো মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। আজ দেয়া হচ্ছে ৩০ এপ্রিলের টিকিট। গত কয়েক দিনের টিকিটের তুলনায় ৩০ এপ্রিলের টিকিটের চাহিদা অনেক বেশি। ফলে ওই দিনের টিকিট কাটতে রেলস্টেশনে টিকিটপ্রত্যাশীদের ভিড়ও অনেক।

লাইনে দাঁড়ানো মানুষদের অধিকাংশই কমলাপুর রেল স্টেশন এলাকাতেই সেরেছেন ইফতার ও সেহরি। পুরুষের পাশাপাশি অনেক নারীরাও এসেছেন সোমবার সেহরির আগে থেকে। সবাই ৩০ এপ্রিলের টিকিট পেতে চান।

এদিকে, টিকিটপ্রত্যাশীদের অনেকেই স্টেশনে লাইনে দাঁড়িয়ে অনলাইনে টিকিট কাটার চেষ্টা করছেন। কেউ কেউ আবার পেয়ে যাচ্ছেন কাঙ্ক্ষিত সেই সোনার হরিণ।

টিকিটপ্রত্যাশী খাদিজা বেগম সাহরির আগে রাত তিনটায় রেলস্টেশনে এসে লাইনে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেন, টিকিটের লাইন খুব কম আগাচ্ছে। তবু আশা আছে টিকিট পাব। সকালে অনলাইনেও বেশ কয়েকবার টিকিট কাটার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি।

মঙ্গলবার অগ্রিম টিকিট বিক্রি চলবে বিকেল চারটা পর্যন্ত। স্টেশনে কাউন্টার আছে ২৩টি। এর মধ্যে ১৬টি কাউন্টার থেকে ঈদযাত্রার অগ্রিম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। কাউন্টার থেকে একজন চারটি টিকিট কাটতে পারছেন। তবে এর জন্য প্রত্যেক যাত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি দিতে হচ্ছে।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা যায়, আন্তনগর, লোকাল ও কমিউটার ট্রেন মিলিয়ে প্রতিদিন ৫৩ হাজার যাত্রী ঢাকা ছাড়তে পারবেন। সেক্ষেত্রে বাড়তি চাপ বিবেচনায় আন্তনগর ট্রেনে অতিরিক্ত বগি, ঈদ স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে কমলাপুর রেলস্টেশনের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার বলেন, সব ঘরমুখী মানুষ যদি ট্রেনে যেতে চান, সবাইকে টিকিট দেয়া কোনো অবস্থাতেই সম্ভব নয়। যাত্রীর চাহিদার তুলনায় টিকিট সীমিত। নির্দিষ্ট সংখ্যক যাত্রীরা যাতে কাউন্টার থেকেই টিকিট পান, তা নিশ্চিত করা হচ্ছে। জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করে টিকিট দেয়ায় কিছুটা ধীরগতি রয়েছে।

Previous articleলাইলাতুল কদর পাপ মুক্তির রাত
Next articleবাবার কোলে শিশুকে হত্যা: আরেক আসামি গ্রেফতার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।