বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মা-বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয়েছে সাবেক অর্থমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও সিলেট-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আবুল মাল আবদুল মুহিতকে।

তার আগে রোববার (১ মে) বেলা সোয়া ২টার দিকে মুহিতের শেষ জানাজার নামাজ সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা ছাড়াও সর্বস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

জানাজার আগে মুহিতের ভাই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা বক্তব্য দেন।

এর আগে দুপুর ১২টার দিকে বিশেষ অ্যাম্বুলেন্সে করে তার লাশ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেয়া হয়। সেখানে ফুল আর চোখের পানিতে সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে শেষ বিদায় জানান সিলেটবাসী।

শহীদ মিনারে আবুল মাল আবদুল মুহিতকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়।

এরপর সাবেক অর্থমন্ত্রীর মর‌দে‌হে শ্রদ্ধা নি‌বেদন ক‌রেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ‌ কে আব্দুল মো‌মেন, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, সি‌লেট সি‌টি কর‌পো‌রেশ‌নের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সংসদ সদস্য মু‌হিবুর রহমান মা‌নিক ও উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদসহ আরো অনেকে।

শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রধান, পুলিশ ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ ছাড়া বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

দুপুর সোয়া ১টা পর্যন্ত সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর জানাজার জন্য লাশ আনা হয় নগরের আলিয়া মাদরাসা ময়দানে।

সেখানে দুপুর সোয়া ২টার দিকে জানাজার পর নগরের রায়নগরে পারিবারিক কবরস্থানে নেয়া হয়। সেখানে তার বাবা মরহুম অ্যাডভোকেট আবু আহমদ আব্দুল হাফিজ এবং মা সৈয়দ শাহার বানু চৌধুরীর কবরের পাশে তাকে দাফন করা হয়। বেলা পৌনে ৩টায় দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে, শনিবার (৩০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে মুহিতের লাশ বহনকারী ফ্রিজার ভ্যান সিলেটের পথে রওয়ানা হয়ে রাত ৯টা ৫০ মিনিটের দিকে নগরের হাফিজ কমপ্লেক্সে এসে পৌঁছায়। রাতে হাফিজ কমপ্লেক্সেই রাখা হয় লাশ।

গত শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) দিবাগত রাত ১২টা ৫৬ মিনিটে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সা‌বেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।

আবুল মাল আবদুল মুহিত বেশ কিছুদিন ধরে বার্ধক্যের নানা জটিলতা ও লিভার ক্যানসারে ভুগছিলেন। তাকে কয়েক দফা হাসপাতালে ভর্তিও করা হয়।

তিনি দুই ছেলে ও এক মেয়ের জনক।

আবুল মাল আবদুল মুহিত ১৯৩৪ সালের ২৫ জানুয়ারি সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন। ১৪ ভাইবোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। তার মা-বাবা দুইজনই তৎকালীন সিলেট জেলার রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন।

সাবেক অর্থমন্ত্রীর প্রথম জানাজা শনিবার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর গুলশান আজাদ মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় জানাজা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় শনিবার বেলা ২টায়। এর পরপরই সেখান থেকে লাশ নিয়ে সিলেটের পথে রওয়ানা করা হয়।

Previous articleবাবার মাগফেরাত কামনায় পাকিস্তানি অভিনেত্রীর মসজিদ নির্মাণ
Next articleশেখ হাসিনার হাত ধরে শ্রমিকের মজুরি ৬ থকে ৮ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে : তথ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।