বাংলাদেশ প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকার দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকার সুবাদে বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রশংসনীয় অগ্রগতি হয়েছে। আমরা টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থাকায় দেশের উন্নয়ন (কাজ) দৃশ্যমান হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার তার কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদান গ্রহণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আসন্ন শীতে দরিদ্র মানুষের মধ্যে কম্বল ও অন্যান্য গরম কাপড় বিতরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদান গ্রহণ করা হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে জয়লাভ করে গত ১৪ বছর ক্ষমতায় থাকায় সরকার ব্যাপক উন্নয়ন কাজের গতি ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, তার সরকার সমাজের সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর কল্যাণে কাজ করে।

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য হলো নিশ্চিত করা যে কেউ যেন বঞ্চিত ও অবহেলিত না থাকে এবং প্রত্যেকেই একটি সম্মানের সাথে জীবনযাপন করতে পারে। আমরা সে ব্যবস্থা করেছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার প্রতিবন্ধী, হিজড়া, বেদে (জিপসি) এবং কুষ্ঠরোগীদের ঘরসহ বিভিন্ন সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে পুনর্বাসন করেছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রত্যেকের জীবনযাত্রার মান উন্নত করে চলেছি। শুধু সমাজে মর্যাদাবান এবং অবস্থান অনুযায়ী নয় বরং সাধারণ মানুষসহ নির্বিশেষে সকলের।’

বন্যা, ঘূর্ণিঝড় ও খরাসহ প্রতিটি প্রাকৃতিক দুর্যোগে অনুদান নিয়ে আসার জন্য শেখ হাসিনা ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানান।

সন্ত্রাস, উগ্রবাদ, মাদকাসক্তি এবং অন্যান্য সামাজিক ব্যাধি থেকে যুব সমাজকে রক্ষা করতে তিনি ব্যবসায়ীদের বিশেষ করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক খাতে বৃহত্তর সহায়তা প্রদানের আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী শিল্পপতিদেরও ক্রীড়াবিদ এবং প্রতিবন্ধী সম্প্রদায় থেকে নিয়োগের আহ্বান জানান।

তিনি ত্রাণ তহবিলে অনুদান প্রদানকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সরকার আসন্ন শীত মৌসুমে শীতার্ত মানুষদের সহায়তায় আগাম ব্যবস্থা নিতে চায়।

Previous articleকুলাউড়ায় জয়নাল হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার
Next articleবুয়েটের ছাত্র ফারদিনের সর্বশেষ ট্র্যাকড লোকেশন ছিল গাজীপুরে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।