কামাল সিদ্দিকী: বিএনপি নেত্রী, জাতীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেছেন, বিএনপি ক্ষমতায় গেলে জাতীয় সরকার গঠন ও দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্ট গঠন করবে। গণতন্ত্র পূণরুদ্ধারের আন্দোলন বিএনপি’র একার পক্ষে সম্ভব নয়। এ জন্য দেশের অন্যান্যর রাজনৈতিক দল ‘ক্ষুদ্র দলগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে। দেশের আগের চেহারা ফিরিয়ে আনতে, গণতন্ত্র, আইনের শাসন, সুশাসন প্রতিষ্ঠা, মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা, মানুষের ন্যায় বিচার পাওয়া ও মানবাধিকারে বিশ্বাস করেন সেই সকল দলগুলো সাথে নিয়েই জাতীয় সরকার গঠনের বিকল্প নেই। জয়ী ও বিজিত নিয়েই এই জাতীয় সরকার প্রতিষ্ঠা হবে।

বিএনপি’র মিডিয়া সেলের আয়োজনে ‘জবাবদিহিতামূলক রাষ্ট্র গঠনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন পরবর্তী জাতীয় সরকার ও দ্বিকক্ষ বিশিষ্ট জাতীয় সংসদ অপরিহার্য’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভা শুক্রবার বিকেলে পাবনা রত্মদ্বীপ রিসোর্টের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভার মূল বক্তা ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, যে সকল ক্ষুদ্র রাজনৈতিক দলগুলো জাতীয় সরকারের সাথে যুক্ত হবেন। তাদের প্রার্থী যদি এমপি হিসেবে নির্বাচিত নাও হন, তবুও তাদের মেধা প্রজ্ঞা ও গঠনমূলক মতামত জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করতে পারবেন। তিনি বলেন, বিএনপির হাত দিয়ে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা, দেশের চারটির পরিবর্তে অসংখ্য গণমাধ্যম তৈরী ও বিচার বিভাগের স্বাধীনতা এসেছে। বিএনপি পরীক্ষা নীরিক্ষা করে প্রমাণ পেয়েছে এক কক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্ট থাকলে সেখানে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া দলটি স্বৈতান্ত্রিক ভূমিকায় অবস্থান করে। সংসদে দুটি কক্ষ থাকলে সেখানে চেক এন্ড ব্যালেন্স থাকে দাবী করেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। তিনি বলেন, দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট সরকার হলে যে কোন নীতি ও আইন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে অনেক সময় পাওয়া যায়। ফলে গঠনমূলক পর্যালোচনা করা সম্ভব হয়।

মিডিয়া সেলের আহবায়ক, সাবেক সংসদ সদস্য জহির উদ্দিন স্বপনের সভাপতিত্বে ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতির সঞ্চালনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিএনপি মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব, সাবেক সংসদ সদস্য শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী।

বক্তব্য দেন পাবনা মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল করিম, পাবনা জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি ও সম্পাদক অ্যাডভোকেট মির্জা আজিজুর রহমান, ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. জাকির হোসেন, পাবনা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি মির্জা আজাদ, জাসদ (রব) পাবনা জেলা শাখার সভাপতি মোজাম্মেল হোসেন কবির, জেলা বিএনপির আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মাসুদ খন্দকার, পাবনা প্রেসক্লাবের সাবেক সম্পাদক আঁখিনুর ইসলাম রেমন, দৈনিক সিনসার সম্পাদক সহকারী অধ্যাপক এসএম মাহবুব আলম, ডেইলী মর্নিং টাচের সম্পাদক এমজি বিপ্লব চৌধুরী, সূচনা সমাজ কল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক পূর্নিমা ইসলাম, পাবনা জেলা গণপরিষদের আহবায়ক অ্যাডভোকেট গোলাম সরোয়ার খান জুয়েল, জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক অডিটর আ্যাডভোকেট আজিজা তামান্না স্বর্ণা প্রমুখ।

Previous articleবিভিন্ন জাতের মিশ্র মাছ চাষে সাফল্য, দ্বিগুন লাভের সম্ভাবনা
Next articleপ্রতিহিংসার রাজনীতির হোতা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।