রবিবার, জুলাই ২১, ২০২৪
Homeরাজনীতি৩শ’ আসনেই প্রার্থী দিবে জাপা: জিএম কাদের

৩শ’ আসনেই প্রার্থী দিবে জাপা: জিএম কাদের

আবু বক্কর সিদ্দিক:জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের বলেছেন- ‘আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩শ’ আসনেই প্রার্থী দিবে জাতীয় পার্টি। এ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি কারো সাথে জোটে যাবে না। তাই, আমরা ৩শ’ আসনেই নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। সে লক্ষ্যে সব জেলাতে কাউন্সিল করে সংগঠনকে শক্তিশালী করা হচ্ছে। প্রতিটি আসনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য চুড়ান্ত প্রার্থী মনোনয়নে কাজ চলমান রয়েছে’।
 বৃহম্পতিবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে গাইবান্ধা ইসলামিয়া হাইস্কুল মাঠে জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এসময় সরকারের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। নিত্যপণ্যের দামে দেশের মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। অদক্ষতা, অপচয় আর লাগামহীন দুর্নীতির কারণেই দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছে না। তাই, সরকার উন্নয়নের গালগল্প শুনিয়ে নানা অজুহাতে এসবের দায় এড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। এরআগে দপুরে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের আয়োজন শুরু করা হয়। পরে উৎসব মুখর পরিবেশে দুপুর সোয়া ১টায় আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মেলনের উদ্ধোধন করেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।
জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক সাবেক এমপি আব্দুর রশিদ সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলন পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি,
রংপুর বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত মহাসচিব রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, প্রেসিডিয়াম সদস্য জহিরুল ইসলাম জহির, রানা মোহাম্মদ সোহেল এমপি প্রমূখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন- জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব সরওয়ার হোসেন শাহীন ও সদস্য রেজাউন্নবী রাজু।
 দীর্ঘ ১১ বছর পর জাপার এ সম্মেলন হওয়ায় নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্বীপনার সৃষ্টি হয়েছে। সম্মেলনে যোগ দিতে সকাল থেকেই জেলার ৭ উপজেলা ও বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে দলে দলে ব্যানার-ফেষ্টুনসহ মিছিল নিয়ে আসেন হাজার হাজার নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা সম্মেলনে অংশ গ্রহণ করেন।
এ বিষয়ে জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব সরওয়ার হোসেন শাহিন বলেন, উৎসাহ-উদ্বীপনায় সম্মেলনে লাখ লাখ নেতাকর্মীর উপস্থিতি প্রমাণ করবে জাতীয় পার্টি কতটা শক্তিশালী। সম্মেলন শেষে শুরু হবে দ্বিতীয় অধিবেশন। সেখানে জেলা কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন কেন্দ্রীয় নেতারা।
আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments