শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Homeরাজনীতিশেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়া সেই আ.লীগ নেতাকে অব্যাহতি

শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়া সেই আ.লীগ নেতাকে অব্যাহতি

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটাক্ষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা সরদার আবুল কালাম আজাদকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে কেন তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তার জবাব দিতে সাত দিনের সময় দিয়েছে জেলা আওয়ামী লীগ। বুধবার রাতে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে আবুল কালাম আজাদ তার ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দেন ‘হাসিনার নিয়ম-নীতির বিবর্তনে এই অঞ্চলে নেতা-কর্মী, জনগণের চরিত্র পালাক্রমে ধর্ষণ চলিতেছে। তবুও আমি সতী।’

বুধবার তার পোস্ট ভাইরাল হয়। এমন পোস্টের পর তিনি সমালোচনার মুখে পড়েন। বাধ্য হয়ে একপর্যায়ে পোস্টটি ডিলিট করে দেন। এ ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগ তাকে দল থেকে অব্যাহতি দিয়ে শোকজ নোটিশ পাঠায়।

জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সুইট স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের জরুরি সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ভাঙ্গুড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকে সরদার আবুল কালাম আজাদকে অব্যাহতি দেওয়া হলো। একই সঙ্গে কেন তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তা চিঠি পাওয়ার সাত দিনের মধ্যে জবাব দিতে নির্দেশ দেওয়া হলো। যদি তিনি সাত দিনের মধ্যে জবাব না দেন তাহলে তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে সুপারিশ করা হবে।

এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে সরদার আবুল কালাম আজাদের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতার এমন স্ট্যাটাস খুবই ন্যক্কারজনক। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে তাকে সব পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।’

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments