মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪
Homeখেলাধুলা১৭২ রানে অলআউট বাংলাদেশে, ৫৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিধ্বস্ত নিউজিল্যান্ড

১৭২ রানে অলআউট বাংলাদেশে, ৫৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিধ্বস্ত নিউজিল্যান্ড

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে একদমই সুবিধা করতে পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটাররা। কিউই স্পিনারদের তোপে মাত্র ১৭২ রানেই অলআউট হয়েছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। ছোট এই সংগ্রহের জবাব দিতে নেমেই বিপর্যয়ে পড়েছে নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশের স্পিনারদের তোপে পঞ্চাশ রান তোলার আগেই হারিয়েছে টপ অর্ডারের ৫ উইকেট।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে ৪৬ রান করেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের করা প্রথম ইনিংসের রান অতিক্রম করতে এখনো প্রয়োজন ১২৬ রান।

এদিন কিউই শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে ওপেনার ডেভন কনওয়েকে বোল্ড করেন এই অফ স্পিনার। ২ রানের মাথায় ফেরেন আরেক ওপেনার টম ল্যাথামও। তাইজুলের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন তিনি। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি চারে নামা হেনরি নিকোলসও। তাইজুলের বলেই শরিফুল ইসলামকে ক্যাচ দেন তিনি। এরপর কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গে জুটি বাঁধেন ড্যারিয়েল মিচেল। তবে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি উইলিয়ামসনও। ৪৬ রানের মাথায় মিরাজের বলে ফেরেন কিউইদের সেরা এই ব্যাটার। একই রানে ফেরেন টম ব্লান্ডেলও। মিরাজের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে ফেরেন তিনি।

এর আগে, প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ বিপর্যয়ে পড়ে ১৭২ রানে অলআউট হয়। আজ বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের হয়ে মাহমুদুল হাসান জয় ও জাকির হাসান উদ্বোধনী জুটিত ১০.৩ ওভারে ২৯ রান তোলেন। তবে ৫ বলের ব্যবধানে দুই ওপেনারকে হারায় স্বাগতিকরা।

দলীয় পঞ্চাশের আগেই ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ বিপদে পড়ে। ১৪তম ওভারে এজাজ প্যাটেলের বলে কাট করতে যাওয়া মুমিনুল হক (৫) উইকেটরক্ষক টম ব্লান্ডেলের কাছে ক্যাচ দেন। পরের ওভারে মিচেল স্যান্টনারের বলে ব্যক্তিগত ৯ রানে এলবির শিকার হন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। এরপর মুশফিকুর রহিম ও শাহাদাত হোসেনের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে টাইগাররা।

তবে দলীয় ৪১তম ওভারে বিরল এক আউটের শিকার হন মুশফিক। কাইল জেমিসনের করা চতুর্থ বলে সলিড ডিফেন্স করেন তিনি। কিন্তু বল মাটিতে পড়ে পেছনে চলে যেতে চাইলে হাত দিয়ে থামান মুশফিক। পরে নিউজিল্যান্ড ফিল্ডাররা আবেদন করলে থার্ড আম্পায়ারের নির্দেশে ‘হ্যান্ডেড দ্য বল’ নিয়মে আউট দেখানো হয় তাকে। এই ব্যাটার ৮৩ বলে ৩৫ রান করেন।

দলীয় ১২৩ রানের মাথায় প্রতিরোধ গড়া শাহাদাত হোসেন ফেরেন গ্লেন ফিলিপসের বলে, ব্যক্তিগত ৩১ রান করে। এরপর কেউই আর উইকেটে থিতু হতে পারেননি। ২০ রান করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১৩ রানে অপরাজিত থাকেন নাঈম হাসান।

কিউই বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট পান মিচেল স্যান্টনার ও গ্লেন ফিলিপস। দুইটি উইকেট পেয়েছেন এজাজ প্যাটেল।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments