নিহত সুমন শীল (৩০)

হাসানুজ্জামান তুহিন: শাহজাদপুর উপজেলার বাঁশবাড়িয়া গ্রামে সুমন শীল (৩০) নামে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক যুবককে জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সুমন শীল বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মৃত নিমাই শীলের ছেলে। সে উপজেলার খুকনী বাজারের একটি সেলুনে কাজ করতো। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১ টার দিকে বাঁশবাড়িয়া খেয়া ঘাট সংলগ্ন এলাকায়।
জানা গেছে, উপজেলার বেলতৈল ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মৃত নিমাই শীলের ২ ছেলে সুমন শীল ও তার ভাই পরিমল শীল খুকনী বাজারের একটি সেলুনে কাজ করতো। গতকাল দুপুরে সুমন শীল খুকনী বাজার থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে দুবর্ৃৃত্তরা তাকে গলা কেটে হত্যা করে খেয়া ঘাটের পাশে ফেলে রাখে। খবর পেয়ে তার স্বজনেরা ঘটনাস্থল থেকে সুমনকে গুরুতর আহত অবস্থায় এনায়েতপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃতের বড় ভাই নির্মল শীল জানান, আমাদের কারও সাথে কোন শত্রুতা নেই। কে বা কারা কী কারণে তাকে জবাই করে হত্যা করেছে সে বিষয়ে তিনি কিছুই বলতে পারেননি। ঘটনার সত্যতা স্বীকার থানার অফিসার ইনচার্জ খাজা গোলাম কিবরিয়া জানান, ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, নৃশংস এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান শুরু করা হয়েছে। এদিকে, প্রকাশ্য দিবালোকে সুমনকে জবাই করে হত্যার ঘটনায় এলাকার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।