সদরুল অাইন: গাজীপুর-৩ আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী গণফোরোমের ইকবাল সিদ্দিকীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক মাওলানা এসএম রুহুল আমীনকে আটক করার ঘটনায় মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

সর্বমহলে শ্রদ্ধেয় পীরজাদা রুহুল অামীনকে গ্রেফতারের ঘটনাটি সাধারন মানুষ খুব একটা ভাল চোখে নেয়নি।অনেকেই এই ঘটনাকে সরকারের প্রতিহিংসার রাজনীতি বলেই মনে করছেন।কারন শ্রীপুরের রাজনীতিতে পীরজাদা রুহুল অামীন বিএনপি’র রাজনীতির সাথে জড়িত থাকলেও তিনি দলটির নেতিবাচক রাজনীতির ধারক নন।পাশাপাশি পীরজাদা হিসেবে মাওলানা রুহুল অামীনের সর্বমহলে গ্রহনযোগ্যতা রয়েছে।

উল্লেখ্য, তিনি জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।

পীরজাদা রুহুল আমীন এর ছেলে গাজীপুর মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক নাহীন আহমেদ মমতাজী জানান, তার পিতা শুক্রবার শ্রীপুরের টেংরা এলাকায় ধানের শীষের নির্বাচনী গণসংযোগ ও প্রচারণা শেষে ফেরার পথে সন্ধ্যা পৌনে ছয়টার দিকে ওই এলাকা থেকে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

তার বিরুদ্ধে কোন মামলা নেই। শ্রীপুর থানার ওসি জাবেদুল ইসলাম জানান, পীরজাদা রুহুল আমীনের বিরুদ্ধে পূর্বে অনেক মামলা ছিল তাই সার্বিক বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।