বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ায় সরকারি বিদ্যালয়ের ল্যাপটপ চেয়ে না পেয়ে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনায় আ.লীগ নেতা নজরুল ইসলাম (৫২) কে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে নন্দীগ্রাম উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আখতার ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ সাজা দেন।
নজরুল ইসলাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সরিষাবাদ গ্রামের মৃত মমতাজ উদ্দিনের ছেলে।

প্রধান শিক্ষক লুৎফুন নেছা জানান, বুধবার সকালে সরিষাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ল্যাপটপটি চান স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম। তখন প্রধান শিক্ষক তাকে ল্যাপটপ না দিলে তিনি প্রধান শিক্ষককে অফিস কক্ষে তালা দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে। সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আখতার পুলিশ নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান এবং সেখান থেকে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় নজরুল ইসলামকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত নজরুল ইসলামের ১৫ বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার বলেন, প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করায় তাকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।