রেজাউল ইসলাম পলাশ: ঝালকাঠির রাজাপুরে নৈকাঠি বাজার সংলগ্নে সন্ধা নদীর সংযোগ খালের ওপর নির্মানাধীন ১৭ ফুট কালভার্ট বাদ দিয়ে বড় ব্রীজ নির্মান করে তিন ফসলি জমি রক্ষার দাবিতে কৃষক জনতা মনববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় উপজেলার নৈকঠি বাজার এলাকায় বরিশাল-পিরোজপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের ওপর ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে সকল শ্রেনী পেশার মানুষ আংশ নেয়। এ সময় রাস্তার দুই পাশে যানজটের সৃষ্ঠি হয়। মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ছিদিকুর রহমান, এ্যাড. মো. মনিরউজ্জামান টিপু, সমাজসেবক শ্রী তাপস দেউরি মানিক, সমাজসেবক মোঃ আনোয়ার হোসেন মিলন, নৈকাঠি সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ মাহবুবুর রহমান, কৃষক নেতা মোঃ ওবায়দুল রহমান, মুক্তিযোদ্ধা মানিক জোমাদ্দার, মোঃ বাবুল সিকদার প্রমূখ। বক্তারা তাদের বক্তব্যে জানায়, তাদের দীর্ঘদিনের ঐতিহ্যবাহী নৈকাঠি বাজার সংলগ্নে প্রায় ৭০ ফুট প্রসস্ত রাজাপুর-ভান্ডরিয়া ভারানি খালের ওপর খাল সংকোচিত করে ১৭ ফুট প্রসস্ত কালভার্ট নির্মান কাজ চলছে। এ কারনে উপজেলার শুক্তাগড়, সাতুরিয়া ও রাজাপুর ইউনিয়নের নৈকাঠী, লেবুবুনিয়া, তারাবুনিয়া, ফুলহার, রোলা, বারবাকপুর, নাড়িকেলবাড়িয়া, শুক্তাগড়, কাঠীপাড়া মৌজার হাজার হাজার একর চাষ যোগ্য জমির ফসল উৎপাদন নিশ্চিত ব্যহত হবে। গুরুত্বপূর্ণ এই খালের নাব্যতা এবং স্বাভাবিক গতিপ্রবাহ অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা জরুরী। এলাকার প্রায় ১০ হাজার একর ফসলি জমিতে ফসল উৎপাদনে ব্যাহত হওয়ার অশঙ্কাকা রয়েছে। আর ফসল উৎপাদনে ব্যাহত হলে কৃষকরা চরম ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়বে। খালের গতিপথ থেমে গিয়ে খাল ভরাট হয়ে নৌকা সহ ইঞ্জিন চালিত সকল নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে। বক্তরা আরো বলেন, প্রকৌশলী ঐ খালের কালভার্ট তৈরির সময় প্রথমেই প্রক্কালন প্রস্তুতে ভূল করেছে। তাই এ ভূল সংশোধন করে খাল অনুযায়ী প্রসস্ত ব্রীজ নির্মান করে এলাকার কৃষক, ব্যবসায়ী সহ সাধারন কৃষক জনতাকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করতে সংশ্লিষ্ট উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের সহযোগীতা কামনা করেছেন।

Previous articleঅসময়ে চৈত্রের ঝড়ে দূর্ভোগে কুমিল্লার চান্দিনা মাধাইয়া-রহিমানগর
Next articleরাজাপুরে নদী থেকে যুবকের ভাসমান লাশ উদ্ধার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।