মহিনুল ইসলাম সুজন: নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাংলা মদ পানে ২ জনের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আরও ২জনকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে। এ মৃত্যুর ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজন। অভিযোগে মতে, সৈয়দপুর শহরের সুরকি মহল্লায় রয়েছে সরকারি লাইসেন্সপ্রাপ্ত একটি মদের ভাটি। সরকারি অনুমোদন প্রাপ্ত ওই ভাটিখানাটি খোলার নিয়ম দুপুর ১টা এবং বন্ধ হওয়ার কথা বিকেল ৫টায়। কিন্তু সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে ভাটিটি চালিয়ে আসছেন ভাটির মালিক রাজু বাবু। তিনি ওই ভাটি সকাল ৬টায় চালু করেন এবং সন্ধ্যা অবধি খোলা রাখেন। এ বিষয়ে দীর্ঘদিন থেকে শহরে আন্দোলন চলে আসলেও তা কোন কাজে লাগেনি। গত ১৮ই মার্চ ওই ভাটির মদ পান করে বিশ্বনাথ হরি ও ২৬ মার্চ শ্রীমতি সাবিত্রী দেবী। ওই মদ পান করার পর তারা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদেরকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কিন্তু পথেই তাদের মৃত্যু ঘটে। অপর পাশে ওই মদ পান করে অসুস্থ হয়ে পড়ে রতন বাসফোর ও অমর্জিদ বাসফোর। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ৫ দিন চিকিৎসা নেয়ার পর তারা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে। বিষাক্ত মদ পানে ২ জনের মৃত্যুর বিষয়ে হরিজন সম্প্রদায়ের ২০ জন স্বাক্ষরিত নারী-পুরুষ ওই অভিযোগ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সৈয়দপুর থানা ওসি বরাবর। অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম গোলাম কিবরিয়া ও সহকারি কমিশনার ভূমি ওই মদের ভাটিতে অভিযান চালান। সেখানে মদ্যপান অবস্থায় ১০জনকে গ্রেফতার করে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে ভ্রাম্যমান আদালতে নিয়ে সাজা প্রদান করা হয়। এ বিষয়ে কথা হয় ভাটি ম্যানেজার জসিম উদ্দিনের সাথে তিনি জানান, আমাদের মদপানে তাদের মৃত্যু হয়নি। শহরে

অনেকেই মদ বিক্রি করেন হয়তো তাদের মদ পানে ওই ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে হরিজন নেত্রী তুতিয়া বাসফোর বলেন, মদের ভাটি সরকারি নিয়মে চালানোর জন্য আমি পশাসনের নিকট অভিযোগ দিয়েছি। তিনি আরও বলেন আমাদের মুন্সিপাড়ায় রোস্তম ও তার স্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে মদের ব্যবসা করে আসছে। আমার অভিযোগের প্রেক্ষিতে সেখানে পুলিশ হানা দেয়। কিন্তু পুলিশ আসার পূর্বেই মদ ব্যবসায়ী স্বামী-স্ত্রী পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, ওই মদের ভাটিতে অভিযান চালিয়ে ১০জনকে গ্রেফতার করে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়েছে। সেই সাথে ভাটি মালিককে নিয়ম অনুযায়ী ব্যবসা পরিচালনার জন্য সতর্ক করা হয়েছে।

Previous articleএকজন শিক্ষক কীভাবে তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী পদমর্যাদার হন?
Next articleময়মনসিংহে প্রথম নগরপিতা হচ্ছেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইকরামুল হক টিটু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।