পাঁচবিবিতে সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করতে গিয়ে গৃহকর্তা সহ নিহত ২

এস এম শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার শালাইপুর গ্রামে একটি বাড়ির নির্মানাধীন টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকের ছাদের সার্টারিং এর কাঠ খোলাসহ ট্যাংক পরিষ্কার করতে গিয়ে গৃহকর্তাসহ ২ জন নিহত ও ১ জন আহত হয়েছেন। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার সময় এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- শালাইপুর গ্রামের মৃত আমজাদ হোসেনের ছেলে গৃহকর্তা মোহাম্মদ আলী ও একই উপজেলার বাঁশখুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে নির্মান শ্রমিক নাইম হোসেন এবং আহত জাকারিয়া হোসেন শালাইপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে। আহত জাকারিয়াকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পারিবারিক ও এলাকাবাসীদের উদ্ধৃতি দিয়ে পুলিশ জানায়, নির্মান শ্রমিক নাইম গৃহকর্তা মোহাম্মদ আলীর সেফটিক ট্যাংকের ছাদের ভেতরে কাঠের সার্টার খোলাসহ ট্যাংকটি পরিষ্কার করতে ভেতরে নামেন। বেশ কিছুক্ষন তার সাড়া শব্দ না পেয়ে গৃহকর্তা সেখানে গিয়ে তাকে ওই ট্যাংকটির ভেতরে অজ্ঞান অবস্থায় পরে থাকতে দেখেন। নাইমকে তুলতে গিয়ে তিনি ও জাকিারিয়া সেফটিক ট্যাংকের ভেতরে অজ্ঞান হয়ে পরেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করার পর ২ জনকে মৃত ও অপর ১ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুনসুর রহমান জানান, উপজেলা সালাইপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর বাড়িতে নতুন একটি পাকা টয়লেট নির্মাণ করে। কয়েক দিন আগে মিস্ত্রিরা ওই টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকের ছাদ ঢালায় দেয়। সোমবার ওই ঢালাইয়ের সার্টার খুলতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত দুই জনকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।