টাঙ্গাইলে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে ৫০ বছরের লম্পট

আব্দুল লতিফ তালুকদার/আবুল কালাম আজাদ: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রীর (৯) ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। ধর্ষষণের দায়ে লম্পট শহিদুল ইসলামকে (৫০) গ্রেফতার করেছে পু‌লিশ।

বৃহস্পতিবার (২৬ সে‌প্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের মালতি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই রাতেই অভিযুক্ত শহিদুলকে আটক করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত শহিদুল একই গ্রামের মৃত ইউনুস মণ্ডলের ছেলে।

শুক্রবার (২৭ সে‌প্টেম্বর) সকালে এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ এবং পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ওই ছাত্রী সন্ধ্যায় বাড়িতে একা ছিল। সে সময়ে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে প্রতিবেশী শহিদুল ইসলাম চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে শিশুটিকে বাড়ির পাশের জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। মেয়েটির চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে আসলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। পরে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ বিষয়ে কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাসান আল মামুন বলেন, এ ঘটনায় অভিযুক্ত শহিদুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে ধর্ষককে টাঙ্গাইল কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।