বাউফলে তুচ্ছ ঘটনায় যুবককে পিটিয়ে হত্যা

অতুল পাল: বাউফলে নাজিরপুর ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মো. আবুল বশার (৩০) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। গত রোববার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে তাকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হলে ওই দিনই রাত সারে আটটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সে মারা যায়। আবুল বশার নাজিরপুর গ্রামের খালেক মাতব্বরের ছেলে। সে ঢাকার একটি লোহার কারখানায় গ্যাস মিস্ত্রি হিসেবে কাজ করতেন বলে স্বজনরা জানিয়েছেন। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, নাজিরপুর গ্রামের আবুল বশারের ছেলে নাবিলের (৭) সাথে একই গ্রামের চান মিয়ার ছেলে রবিউল (৭) স্থানীয় একটি স্কুলে শিশু শ্রেণিতে লেখা-পড়া করতো। গত শনিবার ওই দুই শিশুই স্কুল পালায়। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির জের ধরে রোববার দুপুরে রবিউলের বাবা চান মিয়া ও বড় ভাই সাব্বির নাবিলের বাবা বশারের ওপর লাঠি সোটা নিয়ে হামলা চালায়। হামলাকারীরা বশারকে বেধরক পিটিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে সড়কের ওপর ফেলে রাখে। ঘটনার পর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে সেখানে বশারের শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটলে দ্রুত তাকে বরিশাল শের-ই- বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিসধীন অবস্থায় রোববার রাত সারে আটটার দিকে বশার মারা যায়। আজ সোমবার দুপুরে বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়ে এখনো কোন অভিযোগ করা হয়নি। তবে পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে তৎপর রয়েছে।