খিলক্ষেতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মোটা শাহীনসহ ২ ছিনতাইকারী নিহত

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজধানীর হাতিরঝিল থানা পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন মারা গেছেন। পুলিশের দাবি, নিহতরা ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য বলে দাবি করেছে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার ভোরে খিলক্ষেত এলাকায় ডুমনি কালীমন্দির আহবপাড়া বরাবর ৩০০ ফিট রাস্তা ও দক্ষিণ পাশে সার্ভিস রোডের মাঝখানে ফাঁকা জায়গায় এই ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গণমাধ্যম শাখার উপকমিশনার মাসুদুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
মাসুদুর রহমান বলেন, ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদের খোঁজ পেয়ে খিলক্ষেত থানা পুলিশ অভিযানে যায়। পরে তারা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে ওই চক্রের নেতা মোটা শাহীন ও নাজমুল মারা যায়।
ছিনতাইকারীদের হেফাজতে থাকা একটি আগ্নেয়াস্ত্রও উদ্ধার করা হয়।
‘বন্দুকযুদ্ধে’ যে দুজন মারা গেছেন, তারা ছিনতাইসহ চারটি খুনের ঘটনায় প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে হাতিরঝিল থানায় একটি, খিলক্ষেত থানায় দুটি এবং ভাটারা থানায় একটি মামলা তদন্তাধীন।
পুলিশ জানিয়েছে, রাজধানীতে বেশ কিছু দিন ধরেই একটি চক্র ছিনতাই করে আসছে। তারা যাত্রী সেজে সিএনজি ভাড়া করে। অনেক সময় সাধারণ যাত্রীদের সঙ্গে শেয়ারে সিএনজি ভাড়া নেয়।
তার পর সুযোগ বুঝে চালক বা যাত্রীকে জিম্মি করে মারধর করত, তাদের কাছ থেকে সবকিছু ছিনতাই করে চোখ বেঁধে ফেলে রাখত। এই চক্রটি ‘গামছা পার্টি’ হিসেবে পরিচিত বলে জানায় পুলিশ।