২১ জন শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত : ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র দিয়ে এসএসসি পরীক্ষা গ্রহন

এম এ মুছা: সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের দৌলতপুর উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ২১ জন এসএসসি পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা ২০১৮ সালের পুরাতন প্রশ্নপত্র দিয়ে পরীক্ষা গ্রহন করে বিপাকে ফেলেছেন কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় পরীক্ষা কেন্দ্র সচিব থেকে অব্যহতি দিয়েছে, উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার পালকে। এ ব্যাপরে উক্ত কেন্দ্রে সচিবের সাথে একাধিকবার তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
সোমবার (০৩ ফেব্রুয়ারী) ইউসুফ আলী, আব্দুল্লাহ আল রাফিসহ একাধিক শিক্ষার্থীরা জানায়, পরীক্ষা শুরুর সময় আমাদের ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র প্রদান করে কেন্দ্র কর্তপক্ষ, আমরা এ ব্যাপরে প্রতিবাদ করলে কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ আমাদের পুরাতন প্রশ্নপত্র দিয়েই পরীক্ষা দিতে বলে এবং এ বিষয়ে তারা ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান। এ ঘটনায় আমরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে লিখিত ভাবে অবহিত করি।
উপজলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এস,এম গোলাম রেজা জানান, ঘটনাটি আমি জেনেছি বিষয়টি সম্পুর্ন হল সুপারের দায়িত্ব। ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র দিয়ে এসএসসি পরীক্ষা নেয়ার বিষয়টি শিক্ষা বোর্ডে জানিয়েছি। বোর্ড কর্তৃপক্ষ এই বিষয়টির জন্য তারা বিবেচনা করবেন বলে জানান।

বেলকুচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত-ই-জাহান এই প্রতিবেদককে জানান, এ বিষয়টি অবহিত হওয়ার পর পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের সাথে কথা বলেছি, যারা পুরাতন প্রশ্নপত্র দিয়ে পরীক্ষা দিয়েছে তাদের বিশেষ বিবেচনা করবে বলে জানিয়েছে। এ ব্যাপরে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ পেয়েছি। উক্ত কেন্দ্র সচিবকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে। পরবর্তী পরীক্ষা গুলির জন্য নতুন আর একজনকে কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।