প্রেমিকের গোপনাঙ্গে গরম পানি ঢেলে দিলো প্রেমিকা

সদরুল আইন: প্রেমঘটিত মনোমালিন্যের কারণে প্রেমিককে বাসায় ডেকে নিয়ে মেলামেশার পর যৌনাঙ্গে গরম পানি ঢেলে দিয়েছে প্রেমিকা। মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর মানিকদী এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

গৃহকর্তীর উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাটি ঘটিয়ে দরজা বন্ধ করে আটক করে রাখা হয় প্রেমিক শহিদুল ইসলামকে (২৮)।

পরে গৃহকর্তী বিষয়টি গৃহকর্তাকে জানালে তিনি ট্রিপল নাইনে ফোন করে জানান। পরে দুইজনকে ওই বাসা থেকে আটক করে রাত ৮টায় নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন পুলিশের এসআই শেখ শিবলু মিয়া। দুজনই হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

মেয়েটির ধর্ষণের শিকার হয়েছে কিনা সে জন্য প্রয়োজনীয় সকল পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য তাকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) রাখা হয়েছে।

ছেলেটি বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পুলিশের এসআই শেখ শিবলু মিয়া বলেন, মেয়েটি প্রেমিক শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ দিতে চাচ্ছেন না।

অপরদিকে প্রেমিকও কোনো অভিযোগ দিতে চাচ্ছেন না। ছেলেটি বলছেন, তাদের মধ্যে সম্পর্ক চার বছর ধরে। দুজনই দুজনকে বিবাহ করার জন্য প্রস্তুতও ছিলেন।

তবে মেয়েটির আবদার ছিল তাকে বিয়ে করে চট্টগ্রামে গিয়ে থাকতে হবে, এতে ছেলে রাজি না হওয়ায় তার প্রতি ক্ষুব্ধ ছিল, তাদের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল।

গৃহকর্তী চলে আসার কারণে মেয়েটি হয়তো এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে পুলিশের ধারণা। শেখ শিবলু মিয়া বলেন, মেয়ের পক্ষ থেকে যদি কোন অভিযোগ না দেয়া হয় সেক্ষেত্রে ছেলেকে আটকে রাখা যাবে না।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ছেলে ও মেয়েটি একই বাসায় চাকরি করতো। ছেলেটি প্রাইভেটকার চালক ছিল।

সম্প্রতি সে অন্যত্র চলে গেলেও তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিলো। ছেলেটি বিবাহিত তার দুটি কন্যাসন্তান রয়েছে তবে তার স্ত্রীর সাথে তার সম্পর্ক ছিল না। শহিদুল ইসলামের গ্রামের বাড়ি ভোলার চরফ্যাশনে।