টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী আরিফ নিহত

কায়সার হামিদ মানিক: কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে বহু মামলার পলাতক আসামি ও মাদক কারবারি আরিফ নিহত হয়েছে।

নিহত যুবক টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মহেশখালীয়া পাড়া গ্রামের ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য নুরুল ইসলামের ছেলে আরিফুল ইসলাম (২৫)।

ঐ ঘটনায় টেকনাফ থানার সহকারী উপপরিদর্শক এএসআই রাম সহ ৪ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।
ঘটনা স্থল থেকে অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণে ইয়াবা উদ্ধার করে পুলিশ।

সুত্রে জানা যায়, শনিবার (১৬ মে) ভোর রাতে আটক আসামির তথ্য অনুযায়ী টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মহেশখালীয়া পাড়ার মেরিন ড্রাইভ সংলগ্ন ফিসারি ঘাট এলাকায় লুকিয়ে রাখা মাদক ও অস্ত্র উদ্ধারে গেলে তার সহযোগিদের সাথে পুলিশের গুলাগুলির ঘটনা ঘটে। সে সময় অপরাধীদের ছোঁড়া গুলিতে ৪ পুলিশ সদস্য আহত হলে আত্ম রক্ষায় পুলিশ ও পাল্টা গুলি চালায়।

এতে মাদক কারবারি আরিফ গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় পুলিশ সদস্যরা টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি প্রদীপ কুমার দাস জানান, গুলাগুলিতে নিহত যুবক চিহ্নিত মাদক কারবারি ও সন্ত্রাসী।তার বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় মাদক, হত্যা সহ ১০/১২ টির ও অধিক মামলা রয়েছে।