ত্রাণ আত্মসাৎ এর অভিযোগে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

ওসমান গনি: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার হাড়িখোলা মেইল গেইট এলাকায় স্থানীয় যুবলীগ নেতা মো. কামরুল হাসান এর প্রতারণা ও ত্রাণ আত্ম্যসাৎ এর অভিযোগে মানববন্ধন করে এলাকাবাসী। বুধবার (২০ মে) সকালে দেবিদ্বার উপজেলার ১৪নং সুলতানপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সানানগর গ্রামবাসী ওই মানববন্ধন করে। অভিযুক্ত মো. কামরুল হাসান ওই ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক। সে সানানগর গ্রামের সাবেক মেম্বার মো. ওয়াহেদ আলীর ছেলে। মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী ৫নং ওয়ার্ড যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন, ওই ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম মিয়াসহ মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা অভিযোগ করেন- যুবলীগ নেতা মো. কামরুল হাসান ত্রাণ দেওয়ার কথা বলে সানানগর গ্রামের দরিদ্র, অসহায় ও শ্রমজীবী মানুষের আইডি কার্ড নিয়ে যায়। পরে ত্রাণ সামগ্রী উত্তোলন করে সে নিজেই আত্ম্যসাৎ করে। করোনা ভাইরাসের চলমান সঙ্কট মুহূর্তে একাধিকবার সে ওই ঘটনা ঘটায়। ভুক্তভোগীরা আরও অভিযোগ করেন- এই যুবলীগ নেতা বিভিন্ন সময় পুলিশকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে এলাকার নিরীহ মানুষকে হয়রানি করেন। আবার নিজেই টাকা নিয়ে মানুষকে ছাড়িয়ে আনাসহ নানা রকম বাণিজ্য করে আসছেন। মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা সুলতানপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. কামরুল হাসান এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সানানগর গ্রামের মো. মকবুল হোসেন, মো. হেলাল মিয়া, ৫নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি মোতালেব হোসেন, সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন প্রমুখ। ক্যাপশনঃ চান্দিনা (কুমিল্লা)ঃ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার হাড়িখোলা মেইল গেইট এলাকায় স্থানীয় যুবলীগ নেতা মো. কামরুল হাসান এর প্রতারণা ও ত্রাণ আত্ম্যসাৎ এর অভিযোগে মানববন্ধন করে এলাকাবাসী।