চান্দিনায় করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ, ইউপি সচিবসহ ৩ জন নতুন করোনা শনাক্ত
ওসমান গনি: সারাদেশের ন্যায় কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলায় ও প্রতিদিন বাড়ছে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এবার একজন ইউনিয়ন পরিষদ সচিব সহ নতুন করে আরও ৩জনের করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়। বুধবার (২০ মে) দুপুরে আইইডিসিআর থেকে তাদের নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।
এনিয়ে চান্দিনায় মোট ২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে একজন মারা যান। অপর ৭ জন সুস্থ হয়েছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আহসানুল হক মিলু জানান, উপজেলার জোয়াগ ইউনিয়ন পরিষদের সচিব কংগাই গ্রামের পুরুষ (৫০), বেলাশহর গ্রামের পূর্বে আক্রান্ত রোগীর স্ত্রী (৩২) এবং হারং গ্রামের একজন পুরুষ (৩৫) এর নমুনা পরীক্ষায় করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে। তাদের কর্মস্থল ও বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।
ইউপি সচিবের করোনা শনাক্ত হওয়ায় চান্দিনা উপজেলার জোয়াগ ইউনিয়ন পরিষদ সহ আক্রান্তদের বাড়ি লকডাউন করে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ।
এদিকে চান্দিনা উপজেলাকে গত ৩ মে রেড জোন ঘোষণা করে কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়। কিন্তু রেড জোন ও প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান খোলা রাখছেন অনেকেই। আর চান্দিনা উপজেলা সদরে বুধবার স্বাভাবিক দিনের মতোই মানুষের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। মানুষের অবাধ চলাচলের কারণেই করোনার সংক্রমণ বাড়ছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।