কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কে’র বেহাল দশা
কায়সার হামিদ মানিক: কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কের’ সড়ক ও জনপদ বিভাগের নয়াবাজারস্থ সড়ক’টি ভেঙ্গে বেহাল দশায় পরিনত হয়েছে।র্দীঘদিন যাবত ভাঙ্গা এই সড়কে’র কোন সংস্কার কাজ হয়নি।
জানা যায় ,কক্সবাজার লিংরোড থেকে উনচিপ্রাং পর্যন্ত বড় আকারে সড়ক ও জনপদ বিভাগের মহাসড়ক’টি নতুন ভাবে সংস্কার কাজ হলেও উনচিপ্রাং হতে টেকনাফ পর্যন্ত কোন ধরণের সড়কে সংস্কার হয়নি ফলে যানবাহনে’র যাত্রীদে’র বিপাকে পড়তে হয়।এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন স্থলবন্দরে’র শত শত বিভিন্ন ধরণের যানবাহন চলাচল করে
বর্ষার এই দিনে রাস্তার অবস্থা আরও নাজুক পরিস্থিত সৃষ্টি হয়েছে। টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়ন নয়াবাজাস্থ কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কে’র এই ভাঙ্গায় দুর্ঘটনা থেকে শুরু করে জ্যাম লেগে থাকে প্রতিনিয়ত। যাত্রীদের’কে ভাঙ্গা রাস্তায় ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে হয়।মানুষ নিজ প্রয়োজনীয় কোন জরুরী কাজে যেতে গেলে ভাঙ্গা এই সড়কে মুল্যবান সময় জ্যামের মধ্যেই পার করে দিতে হয়।
এবিষয় স্থানীয় সমাজ সেবক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী জানান,র্দীঘদিন সড়ক ও জনপদ বিভাগের উপজেলার নয়াবাজারস্থ ভাঙ্গা এই রাস্তা’টি কোন ধরণের সংস্কার কাজ হয়নি।রাস্তা’টি ভেঙ্গে ঝুঁকির্পুণ হয়ে গেছে।যে কোন সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।জরুরী ভিত্তিতে গুরুত্বর্পুণ কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কের এই ভাঙ্গা রাস্তা’টি সংস্কার কাজ অতি প্রয়োজনীয়।
হোয়াইক্যং মডেল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নুর আহমদ আনোয়ারী জানান, কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কের হোয়াইক্যং নয়াবাজার স্টশন চত্বর রাস্তা’টি ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে।প্রতিদিন শত শত ভাড়ী যানবাহনের আসা যাওয়া রয়েছে। বর্ষাও দিনে পরিস্থিত আরও খারাপ।প্রতিদিন জ্যাম লেগে তাকে।আমি সড়ক ও জনপদ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃক পক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেছি ভাঙ্গা সড়ক’টি যেন দ্রুত সংস্কার করা হয়।