ভূঞাপুরে জাতীয় ফল কাঁঠালের বাজার মন্দা 

আব্দুল লতিফ তালুকদার: আষাঢ়ে মধুমাসে বাজারে বিভিন্ন ফলের চাহিদা পর্যাপ্ত থাকলেও দেশের জাতীয় ফল কাঁঠালের চাহিদা কিন্তু দিনদিন কমে যাচ্ছে। এক সময় কাঁঠাল আর মুড়ির মেলবন্ধন ছিল বাঙালীদের মাঝে। সকালের নাস্তায় থাকতো কাঁঠাল আর মুড়ি। কালের বিবর্তনে মানুষের চাহিদার পরিবর্তন হচ্ছে দিনদিন। সেই চাহিদায় পরিবর্তনের প্রভাব পড়েছে কাঁঠালেও। টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে কাঁঠালের ফলন ভালো হলেও চাহিদায় ভাটা পড়েছে একেবারে।

গেল বৃহস্পতিবার উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ঘুরে দেখা গেছে কাঁঠালের পর্যাপ্ত যোগান থাকলেও ক্রেতার সংকটে অবিক্রীত থেকে যাচ্ছে তা । উপজেলার গোবিন্দাসী হাটে কাঁঠাল বিক্রেতা ভাসান বলেন, এবার বাজারে প্রচুর কাঁঠাল, কিন্তু বিক্রি হচ্ছে খুবই কম । দাম কম হওয়ায় মানুষ গরুর খাদ্য হিসেবে নিচ্ছে। বিভিন্ন আকার ভেদে দশ থেকে ত্রিশ টাকায় বিক্রি হচ্ছে এসব কাঁঠাল। উপজেলার মাটিকাটা গ্রামের কাঁঠাল চাষি মো.সাইফুল ইসলাম জুয়েল জানান, আমার গাছের ১৫০টি কাঁঠাল মাত্র ১ হাজার টাকায় বিক্রি করেছি। পৌর এলাকার ৯ নং ওয়ার্ডের শিয়ালকোল গ্রামের আকামত তালুকদার জানান, আমার গাছের কাঁঠাল পেঁকে পেঁকে পড়ে যাচ্ছে। আত্নীয় স্বজন কেউ নিতে চায় না।

ভূঞাপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো.জিয়াউর রহমান বলেন, আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় উপজেলায় এবার কাঁঠালের ফলন অনেক ভালো হয়েছে। ভূঞাপুরে এবার ১৫'শ মেট্রিক টন কাঁঠালে উৎপাদন হয়েছে। বিভিন্ন পুষ্টিগুনে ভরপুর,এতে বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন এ, বি১,বি২,সি, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম। এছাড়াও কাঁঠালের বহুবিদ ব্যবহার রয়েছে, এর রস দিয়ে বিভিন্ন রকমের পিঠা তৈরি করা যায় এবং এর বিচি তরকারি হিসেবে বেশ চাহিদা রয়েছে। কাঁঠালের উচ্ছিটাংশ গরুর সুস্বাদু খাবার। তবে করোনার প্রভাবে কিছুটা চাহিদা কমেছে।

Previous articleকলাপাড়ায় ক্ষতিগ্রস্থ বাধঁটি সংস্কারের দাবী এলাকাবাসীর
Next articleচৌহালীতে ৮ ইউপি সদস্যের অনিয়ম দুর্নীতির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।