নদীতে নিখোঁজের ২২ ঘণ্টা পর ভেসে উঠল দুই শিশুর মরদেহ

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কুমিল্লার তিতাসে গোমতী নদীতে ডুবে নিখোঁজের ২২ ঘণ্টা পর ২ শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয় পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কর্মীরা।

গত ১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার জিয়ারকান্দি ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের দক্ষিণপাশের গোমতী নদীতে দাদীর সঙ্গে গোসল করতে পানিতে ডুবে যায় আপন চাচাতো ২ বোন। নিহত ফাতেমা (৭) ওই গ্রামের হোসেন মিয়ার মেয়ে ও মনিজা আক্তার (৭) চাচা মহাসিন মিয়ার মেয়ে।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দুপুর সাড়ে ১২টার দুই বোন তাদের দাদীর সাথে গোমতী নদীতে গোসল করতে গিয়েছিল এবং তাদের দাদীর সামনেই তারা পানিতে ডুব দেয়। এরপর ফাতেমা ও মনিজা ভেসে না উঠায় দাদী সবাইকে বিষয়টি জানায়।

পরে বাবা-মাসহ পরিবারের লোকজন এলাকার শত শত মানুষ নদীর পাড়ে ভিড় জমায় ও তাদের খুঁজতে থাকে। চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কর্মীরা সোয়া ৩টায় রওয়ানা দিয়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছান এবং টানা দেড় ঘণ্টা উদ্ধার অভিযান করে বন্ধ করে যান। পরে আজ সকালে পুনরায় দ্বিতীয় দিনের মত অভিযান শুরু করে সকাল সাড়ে ১০টায় দুই বোনের নিথর দেহ পানিতে ভেসে উঠলে তাদের উদ্ধার করেন উদ্ধার কর্মীরা।

এদিকে, একই পরিবারে দুই শিশুর মৃত্যুতে পরিবারে চলছে শোকের মাতম। ফাতেমা ও মনিজার স্বজনদের আহাজারিতে কান্না ধরে রাখতে পারছেন না প্রতিবেশীরাও। নিহত ফাতেমা স্থানীয় উল্লাস মাল্টিমিডিয়া স্কুলে নার্সারিতে ও মনিজা সানফ্লাওয়ার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে কেজি শ্রেণীতে পড়তো।