বগুড়ায় স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করলেন স্বামী

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বগুড়ার ধুনটে শেফালী বেগম (৪৫) নামের এক নারীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে তার স্বামী এশারত আলী আকন্দ।

শনিবার (১০ অক্টোবর) দিবাগত রাত ২টার দিকে ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ি ইউনিয়নের পাঁচথুপি-সরোয়া গ্রামে হত্যার ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, শনিবার রাতে খাবার খেয়ে নিজ ঘরে একই বিছানায় ঘুমিয়ে পড়েন এশারত আলী ও তার স্ত্রী শেফালী বেগম। রাত ২টার দিকে তাদের ঘরে চিৎকার শুনতে পারেন বাড়ির অন্যান্য লোকজন। প্রতিবেশীরা ঘুম থেকে জেগে এশারত আলীর ঘর চারদিক থেকে ঘিরে ফেলেন। সবাই এশারতকে ঘরের দরজা খুলতে বলেন। এসময় এশারত আলী বলেন, ঘরের ভেতর কেউ ঢোকার চেষ্টা করলে সবাইকে জবাই করা হবে। এক পর্যায়ে এশারত আলী কৌশলে ঘরের দরজা খুলে পালিয়ে যায়।

নিহতের ছেলে সেলিম হোসেন জানান, সন্ধ্যার দিকে মা ও বাবার মধ্যে পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে বিরোধ হয়েছে। সেই বিরোধের জের ধরে বাবা আমার মাকে গলা কেটে হত্যার পর পালিয়ে গেছেন।

ধুনট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) প্রদীপ কুমার বর্মন বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে মরদেহের উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। ঘাতক এশারত আলীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।