সাঁথিয়া হাসপাতাল চিকিৎসাধীন লিটন।

আব্দুদ দাইন: পাবনার সাঁথিয়ায় ট্রাক্টর দিয়ে পেঁয়াজের ক্ষেত নস্ট করার প্রতিবাদ করায় লিটন (৩২) নামে এক যুবকের পুরুষাঙ্গ কর্তন করেছে প্রতিপক্ষ। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রামে। লিটন ওই গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে। সাঁথিয়া থানায় দেয়া অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, সাঁথিয়া পৌরসভাধীন গোপিনাথপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে লিটন সোমবার রাত ৮টার দিকে বাড়ির পাশে আব্দুল করিমের মুদিখানা দোকানের সামনে দাড়িয়ে প্রতিপক্ষ ফরহাদ ও রেজাউলকে তার পেঁয়াজের জমির উপর দিয়ে ট্রাক্টর নিয়ে যাওয়ায় ফসল নষ্ট করার কথা জিজ্ঞাসা করেন। এসময় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে দু’জন মিলে লিটনকে ধরে তার পুরুষাঙ্গে বেøড দিয়ে পোঁচ দেয়। এতে লিটনের পুরুষাঙ্গের গোড়ার অনেকাংশ কেটে যায়। এ সময় লিটনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা দু’জন দ্রæত পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে রাতেই মুমুর্ষ অবস্থায় সাঁথিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় লিটনের স্ত্রী তানিয়া বাদী হয়ে সাঁথিয়া থানায় ফরহাদ ও রেজাউলকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচাজ(ওসি)আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অভিযোগ পেয়েছি। আসামী আটকের জন্য পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অতি দ্রæত তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।