স্বপন কুমার কুন্ডু: ঈশ্বরদীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা যাচাই-বাছাই কার্যক্রমের শুনানি ৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গত ৩০ জানুয়ারি জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন, ২০০২ এর ৭ (ক) ধারার ব্যত্যয় ঘটিয়ে সুপারিশবিহীনভাবে প্রকাশিত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেটসমূহকে নিয়মিতকরণের লক্ষ্যে যাচাই-বাছাইয়ের দিন নির্ধারিত ছিল। কিন্তু ৩০ জানুয়ারি কোনো কোনো স্থানে পৌরসভা নির্বাচনের তারিখ নির্ধারিত থাকায় ওই দিন কোন যাচাই-বাছাই না হওয়ায় ঈশ্বরদী উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই-বাছাই কার্যক্রম ৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ও লক্ষীকুন্ডা ইউনিয়নের তালিকা ভুক্ত ৬৯ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই-বাছাই করা হয়।
এ সময় যাচাই-বাছাই কমিটির সভাপতি পাবনা-৪ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বিশ্বাস, সদস্য নজরুল ইসলাম মিন্টু, আমিনুর রহমান সদস্য ও সদস্য সচিব, উপজেলার নির্বাহী অফিসার পি.এম ইমরুল কায়েস উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) অনুমোদন ছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রকাশিত বেসামরিক গেজেট যাচাই-বাছাইয়ের জন্যই এই কার্যক্রম হাতে নিয়েছে সরকার। প্রকৃত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রকাশের অংশ হিসেবে এই যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে।

Previous articleঈশ্বরদীতে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির শতবর্ষ উদযাপন
Next articleরংপুরে প্রথম দিন ভ্যাকসিন নিচ্ছেন সিটি মেয়র, স্বাস্থ্য পরিচালক, জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জনসহ প্রায় ৮শ জন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।