এস কে রঞ্জন: পটূয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর থানার মহিপুর গ্রামের রায়হান (২২) নামের এক যুবককে অপহরনের পরে গাছে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরর দুই দিন অতিবাহিত হলে ও অপহৃত ওই যুবককে উদ্ধার কিংবা অভিযুক্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি মহিপুর থানা পুলিশ। অপহৃত রায়হান মহিপুর গ্রামর আবুল কাশেম মিয়ার ছেলে।
রায়হানের পারিবারিক সূত্র জানা যায়, ৪ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে রায়হান তার শ্বশুর বাড়ি তালতলির উদ্দেশ্যে রওয়না দেয়। এ সময় তার সাথে ১ লক্ষ টাকা, মোটরসাইকেল এবং একটি মোবাইল সেট ছিলো বলো দাবি পরিবারের। পরে সন্ধ্যায় তার স্ত্রী ফোন করে অবস্থান জানতে চাইলে মোবাইলের অপরপ্রান্ত থেকে ধস্তাধস্তির আওয়াজ শুনতে পায়। এসময় সংযাগো বিছিন্ন করে ফোনটি বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে অনকে খোজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পায়নি পরিবার। রাতে স্থানীয়  শাজাহান শিকদারের মাধ্যমে তার পিতা আবুল কাশেম ফেসবুক একটি ভিডিও দেখতে পায় থানা পুলিশকে অবহিত করেন। এবং রাতই তিনি বাদী হয়ে ইমাম সিকদার, মশিউর, ইমরান ও বিপ্লব শীলসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪/৫ জনর নামে মহিপুর থানায় একটি অভিযাগ দায়ের করেন।
এ বিষয় মহিপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, ’আসামীদর গ্রেফতার এবং অপহৃত রায়হানকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’