বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চট্টগ্রামের আনোয়ারায় এক ব্যক্তিকে অপহরণের পর মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে ৬ পুলিশ কনস্টেবলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে তাদের গ্রেফতারের পর আদালতে উপস্থাপন করা হলে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

আদালত সূত্রগুলো ৬ পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করলেও পুলিশের কোনও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে রাজি হননি। গত বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) আবদুল মান্নান নামের ওই ব্যক্তিকে অপহরণ করে নিয়ে যায় অভিযুক্ত ৬ পুলিশ কনস্টেবল।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, সিএমপির এএসএফ শাখার কনস্টেবল আবদুল নবী, কনস্টেবল এসকান্দর হোসেন, কনস্টেবল মনিরুল ইসলাম, কনস্টেবল শাকিল খান, কনস্টেবল মোহাম্মদ মাসুদ এবং কনস্টেবল মোর্শেদ বিল্লাহ।

মামলার নথি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, গত ৩ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে চার মোটরসাইকেল যোগে ৮ জন তরুণ আনোয়ারা থানাধীন পূর্ব বৈরাগ গ্রাম থেকে আবদুল মান্নানকে তুলে নিয়ে যায়। এসময় তারা নিজেদের পুলিশের লোক বলে পরিচয় দেয়। এমনকি একজনের গায়ে ডিবি লেখা জ্যাকেটও ছিল।

পরে ওই তরুণরা আবদুল মান্নানকে পটিয়ার ভেল্লাপাড়া এলাকায় নিয়ে আটকে রাখে। তরুণদের দাবি, আবদুল মান্নানের বিরুদ্ধে থানায় অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগ থেকে মুক্তি পেতে হলে ১০ লাখ টাকা দিতে হবে। পরবর্তীতে তাদের ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা দেয়া হলে তারা তাকে ছেড়ে দেয়। তরুণদের কথপোকথনে মোর্শেদ নামে একজনের নাম জানতে পারে আবদুল মান্নান।

পুলিশ সদস্য পরিচয়ে অপহরণ এবং মুক্তিপণের অভিযোগ জানিয়ে আবদুল মান্নান গত ৭ ফেব্রুয়ারি আনোয়ারা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার সূত্র ধরে অনুসন্ধান চালিয়ে পুলিশ এ ঘটনার সঙ্গে ৬ পুলিশ কনস্টেবলের সম্পৃক্ততা পেয়ে তাদের গ্রেপ্তার করেন।

Previous articleবাবার চেয়ে ছেলে সাড়ে ১২ বছরের বড়!
Next articleআপত্তিকর অবস্থায় দেখে স্ত্রী ও যুবককে পিটিয়ে হত্যা!
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।