আবুল কালাম আজাদ: টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে এমএসআর সরবরাহের দরপত্রে অনিয়মের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ঠিকাদাররা। সোমবার দুপুরে কয়েকজন ঠিকাদার টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু মিয়নায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন,টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চলতি বছরে এমএসআর সরবরাহের জন্য সম্প্রতি দরপত্র আহ্বান করা হয়।নিয়মতান্ত্রিকভাবে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স শামছুল হক ফামের্সী, মেসার্স লোটাস সার্জিক্যাল,মেসার্স প্রান্তিক এন্টারপ্রাইজ,মেসার্স সাইদ মেডিক্যাল,মেসার্স দীনা ফার্মেসীর নামে সিডিউল কিনে দরপত্রের শর্তাবলি মেনে ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর সিডিউল দাখিল করে। সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, দুর্নীতির মাধ্যমে সর্বনি¤œ দরদাতাদেও ও দরপ্রস্তাব মূল্যায়ন না করে অনিয়মের মাধ্যমে উচ্চ দরদাতাদের দরপ্রস্তাব বিবেচনায় নিয়ে চূড়ান্তভাবে ঠিকাদার নিয়োগের জন্য প্রশাসনিক অনুমোদনের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে পাঠানো হয়েছে। এতে সরকারের কোটি টাকার উপরে নিশ্চিত লোকসানের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।এ খবর জানতে পেরে তারা অনিয়মের বিষয়ে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়,তারা (ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান) এমএসআর দরপত্রের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য জানতে তথ্য অধিকার আইনে আবেদন করলেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আবেদন গ্রহন করা হয়নি। ডাকযোগে অভিযোগপত্র পাঠালেও তা ফিরিয়ে দেওয়া হয়। সংবাদ সম্মেলনে মেসার্স শামছুল হক ফার্মেসীর স্বত্ত্বাধিকারী মো. আমিনুর রহমান শাহীন,মেসার্স সাইদ মেডিক্যাল হলের মো. আবু সাইদ চৌধুরী ও মেসার্স প্রান্তিক এন্টারপ্রাইজের পরিচালক আব্দুল্লাহ আলম মাসুদ সহ বিভিন্ন প্রিণ্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরাউপস্থিত ছিলেন।

Previous articleটাঙ্গাইলে খালেদা জিয়ার কারাবন্দি দিবস পালন
Next articleরায়পুরে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক যুবককে কারাগারে প্রেরণ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।