শাহীন মাহমুদ রাসেল: কক্সবাজার সদরের খুরুশকুল-চৌফলদন্ডী ব্রীজের পাশে ভারুয়াখালী খালে নোঙর করা একটি বোট থেকে সাত বস্তা ইয়াবা উদ্ধার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি)। সাত বস্তায় ১৪ লাখ ইয়াবা রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারী) বেলা ২টার দিকে কক্সবাজারের পুলিশ সুপারের হাসানুজ্জামানের নেতৃত্বে চালানো অভিযানে ইয়াবার বৃহৎ চালান জব্দ করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী। এ ইয়াবা চালানের সাথে ট্রলার মালিকসহ দুজন পাচারকারীকেও গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ট্রলার মালিক কক্সবাজার শহরের নুনিয়ারছরা এলাকার মোজাফফরের ছেলে মোহাম্মদ বাবু (৫৫), একই এলাকার রাজু মেম্বারের ছেলে মোহাম্মদ ফারুক (৩৭)।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, গোপন সংবাদে খবর আসে চৌফলদন্ডী ব্রীজ এলাকায় ভারুয়াখালী খালে একটি ট্রলারে বিপুল পরিমাণ ইয়াবার চালান রয়েছে। সেই খবরের ভিত্তিতে পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামানের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়।

পুলিশের কয়েকটি দলের সমন্বয়ে চালানো এই অভিযানে একটি কাঠের বোট থেকে ইয়াবা ভর্তি সাতটি বস্তা উদ্ধার করা হয়। প্রতিটি বস্তায় ২৫ থেকে ৩০ কাট ইয়াবা পাওয়া গেছে। উদ্ধার বস্ততায় সর্বমোট ১৪ লাখ ইয়াবা রয়েেছ।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান বলেন, গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে উখিয়ার ইনানীর রেজুরখাল মোহনা থেকে ইয়াবার বিশাল এ চালানটি তারা গ্রহণ করে চৌফলদন্ডী ঘাটে এনে খালাসের অপেক্ষা করছিল। চক্রের দুইজনকে যেহেতু হাতেনাতে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে তাদের সাথে জড়িত অন্যান্য সদস্যদের ব্যাপারেও খোঁজ পাওয়া যাবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।