শাহহীন মাহমুদ: কক্সবাজারের উখিয়ার ২২ নম্বর রোহিঙ্গা শিবির থেকে ক্যাম্প ইনচার্জ (সিআইসি) কার্যালয়ে মিটিং করতে যাওয়ার পথে নিখোঁজ পাঁচ রোহিঙ্গা নেতার (মাঝি) মধ্যে তিন জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল পাঁচটার দিকে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় এ তিন রোহিঙ্গা নেতাকে উখিয়ার হাকিমপাড়া ১৪ নম্বর ক্যাম্পের ব্লক এ-৪ থেকে উদ্বার করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

নিখোঁজের পর উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গা নেতারা হলেন, ক্যাম্প ২২ এর ‘বি’ ব্লকের হেড মাঝি জুলফিকার আলীর ছেলে আবু মুছা (২৯), একই ক্যাম্পের ‘ডি’ ব্লকের হেড মাঝি হারুনুর রশিদের ছেলে সাব্বির (৪২), ‘এ’ ব্লকের হেড মাঝি ও নজু মিয়ার ছেলে মো. ইউসুফ (৩২)।

অন্যদিকে সি-ব্লকের হেড মাঝি আমানুল্লাহ এবং নাসের হোসেনের ছেলে ও ক্যাম্পের হেড মাঝি রফিক এখনো নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে বুধবার বেলা ২টার দিকে ক্যাম্প-২২ থেকে ২১ নং রোহিঙ্গা ক্যাম্প ইনচার্জ (সিআইসি) কার্যালয়ে মিটিং করতে যাওয়ার পথে তারা নিখোঁজ হয়েছেন বলে জানিয়েছিলেন পরিবারের সদস্যরা। তাদের দাবী, অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা ওই ৫ মাঝিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

নিখোঁজ পরিবারের স্বজনদের দাবী, নিখোঁজ রোহিঙ্গা নেতারা বিভিন্ন সময় রোহিঙ্গা উগ্রপন্থী সশস্ত্র গ্রুপের সদস্যদের বিষয়ে আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করে আসছিলেন। তাই রোহিঙ্গা উগ্রপন্থী সশস্ত্র গ্রুপের সদস্যরা প্রতিশোধ নিতে তাদের অপহরণ করেছে বলে তাদের ধারণা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রোহিঙ্গা শিবিরে নিরাপত্তা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত ১৬ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম বলেন, অপহরণের একদিন পর সেনাবাহিনীর সহায়তায় অপহৃত পাঁচজনের মধ্যে তিনজনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। বাকি দুই জনের এখনও সন্ধান পাওয়া যায়নি। তবে তাদের উদ্ধারে অভিযান চালানো হয়েছে।

পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় উখিয়ার হাকিমপাড়া ১৪ নম্বর ক্যাম্পের ব্লক এ-৪ থেকে উদ্বার করে তাদের পালংখালী আর্মি ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়েছে।