বাংলাদেশ প্রতিবেদক: সাতক্ষীরায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে একরামুল ইসলাম (২০) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গত ১৪ মার্চ সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা মাঠপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পরে রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার (১৫ মার্চ) সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্র জানায়, গত ১৪ মার্চ রাতে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা মাঠপাড়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে ষষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রীকে ফুসলিয়ে নিয়ে ধর্ষণ করে প্রতিবেশী কামরুল ইসলামের ছেলে ইকরামুল হোসেন। জোরপূর্বক বাড়ির ছাদে নিয়ে ধর্ষণের এক পর্যায়ে ওই ছাত্রী চিৎকার দিলে বাড়ির লোকজন ছুটে আসে। ততক্ষণে ধর্ষক পালিয়ে যায়। ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালটির চিকিৎসক এস এম সুজায়েত জানান, রক্তাক্ত অবস্থায় রাতে শিশুটিকে ভর্তি করা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে। এখনো সে শঙ্কামুক্ত নয়।

এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার শিশুটির ভাই বাদী সাতক্ষীরা সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত একরামুল ইসলামকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Previous articleমুলাদীতে মরহুম আব্দুল ওয়াহেদ মিয়ার স্মরণসভা ও দোয়া মোনাজাত
Next article‘পাত্রী চাই’ বিজ্ঞাপনে অভিনব প্রতারণা, অসংখ্য নারীর স্বপ্ন তছনছ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।