বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ভোলায় বাবাকে পিটিয়ে হত্যার দায়ে ছেলে আবু সায়েদকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) দুপুরে ভোলার জেলা ও দায়রা জজ এ বি এম মাহমুদুল হক এ রায় দেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৩ আগস্ট বিকেল সাড়ে ৪টায় সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের চর আনন্দ পাট-০১ গ্রামের আবদুল মুনাফ সাজিকে তার ছেলে আবু সায়েদ লোহার খোন্তা শাবল দিয়ে আঘাত করে। এতে মুনাফ সাজির মাথার হাড় কেটে গুরুতর জখম হয়। তাৎক্ষণিক তাকে ভোলা সদর হাসপাতাল ও পরে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে বরিশাল থেকে ঢাকায় নেয়ার পথে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট ভোরে তার মৃত্যু হয়। বাড়িতে একটি গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনার সূত্রপাত হয়।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ছেলে আ. রব বাদী হয়ে সদর থানায় মামলা করেন। পরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সেশন ৩২৭/২০১৭ নম্বর মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ ১০ জন সাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করে। সাক্ষ্যপ্রমাণে আসামি আবু সায়েদের বিরুদ্ধে আনীত পেনাল কোডের ৩০২ ধারার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে মৃত্যুদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

রায়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি অ্যাডভোকেট সৈয়দ আশিরাফ হোসেন লাবু সর্বোচ্চ সাজা দেওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট স্বপন কৃষ্ণ দে এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন।

Previous articleসম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টা হলেই প্রতিরোধ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
Next article২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে রেকর্ড
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।