ফজলুর রহমান: রংপুরের পীরগাছায় মুক্তা বেগম (২২) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার বিকালে উপজেলার চন্ডিপুর গ্রাম থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মুক্তা বেগম ওই গ্রামের মজনু মিয়ার মেয়ে। মুক্তার পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় দুই বছর আগে বগুড়ার বাসিন্দা সুমন মিয়ার সঙ্গে মুক্তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই মুক্তাকে বাবার বাড়িতে রেখে সুমন চট্রগ্রামের একটি কম্পানিতে চাকরি করে আসছে। স্বামীর সঙ্গে দূরত্বের কারণে মুক্তার মধ্যে কিছুদিন থেকে দুশ্চিন্তা ও মানসিক সমস্যা দেখা দিয়েছিল। এরই মধ্যে বুধবার দুপুরে স্বয়ন ঘরে গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায় পরিবারের লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করেছে। পীরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মুক্তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের স্বামী আসার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleভারত ফেরত যাত্রীদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশ
Next articleহাসপাতালগুলো প্রায় ভরে গেছে, এটা একটা দুর্যোগময় পরিস্থিতি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।