প্রদীপ অধিকারী: পাঁচবিবি উপজেলা সহ উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নে প্রতি বছরের মতো এবারও মৌসুমী সবজি সজনের বাম্পার ফলন হয়েছে। আবহাওয়া এবং প্রাকৃতিক কোনো দুর্যোগ না হওয়ায় গত কয়েক বছরের চেয়ে এবার সজনে উৎপাদন অনেক বেশি। স্থানীয় ও দেশের বিভিন্ন হাট- বাজারে সজনের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এই সবজি স্থানীয়ভাবে বিক্রির পাশাপাশি রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় রপ্তানি করা হয়। বাজারে অন্য সবজির চেয়ে প্রথমে ১২০-১৪০ টকা কেজি গেলেও বার্তমানে বাজারে সজনের আমদানি ব্যাপক হওয়ায এখন গ্রামের পাইকাররা বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে প্রতি কেজি ১৫- ২০ টাকার মধ্যে সজনা ক্রয় করে হাতবদল হয়ে পাঁচবিবি থেকে ট্রাক বোঝাই করে ঢাকায় চলে যাচ্ছে। যা রপ্তানি হচ্ছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। বাজারের সজনে ব্যবসায়ী বাচ্চু দাস জানায়, অন্য এলাকার থেকে পাঁচবিবি উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নে সজনে চাষ বেশি হয়, তিনি পাঁচবিবি ও আশেপাশের গ্রামগুলি থেকে পাইকারি দরে সজনে ক্রয় করে পাঁচবিবি বাজারে নিয়ে বিক্রি করেন এবং পাঁচবিবির পাইকাররা সরাসরি ট্রাকযোগে এইসব সজনে ঢাকায় প্রেরন করেন। সজনে প্রধানত দুই প্রজাতির। এর মধ্যে এক প্রজাতির সজনে বছরে তিন থেকে চার বার পাওয়া যায়, যাকে বলা হয় বারমাসী (রাইখজ্ঞন)। উপজেলায় সজনের বানিজ্যিক ভাবে কোনো চাষ হয়না। যেকোনো পতিত জমির আইল, পুকুর পাড়ের আইল, রাস্তার ধার, বাঁধের ধারে বাড়ির আশেপাশে এমনকি শহর বন্দরের যেকোনো ফাঁকা জায়গায় লাগানো যায়। এর কোনো বীজ বা চারার প্রয়োজন হয় না। গাছের ডাল কেটে মাটিতে পুতে রাখলেই সজনে গাছ জম্মায়। সজনে গাছের কোন পরিচর্যার প্রয়োজন হয় না। প্রাকৃতিকভাবে বেড়ে উঠে এ গাছ। বড়- মাঝারি ধরনের একটি গাছে ৫-৬ মণ পর্যন্ত সজনে পাওয়া যায়। বিনা খরচে অধিক লাভ হওয়ায় অনেকেই রাজশাহী ও ভারত থেকে বারমাসী জাতের চারা সংগ্রহ করে বাণিজ্যিকভাবে সজনে চাষের প্রস্তুতি নিচ্ছে, তবে এলাকায় এখনো এরকম বাগনে সজনে চাষ দেখা যায়নি। বিশেষ করে পাঁচবিবি উপজেলার মাটি, পানি ও আবহাওয়া সব্জি চাষের জন্য উপযোগী হওয়ায় উপজেলা সদর সহ ৮ টি ইউনিয়নে প্রচুর সজনে গাছ দেখা যায়। এসব গাছ থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার মণ সজনে উৎপাদন হয়।

Previous articleসুনামগঞ্জের শাল্লায় দুপক্ষের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২০
Next articleতাহিরপুরে আগুনে পুড়ে গেছে তিনটি দোকান, প্রায় ১০লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।