তাবারক হোসেন আজাদ: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে তুচ্ছ ঘটনায় ছেলে ফরহাদের (১৫) সাথে অভিমান করে বিষপান করেন গৃহবধু ফাতেমা বেগম (৩৭)। অবশেষে ১০ দিন রায়পুর সরকারি, লক্ষ্মীপুর সদরের উপশম (প্রাঃ) হাসপাতাল ও নীজ বাড়ীতে চিকিৎসাধিন পর বুধবার (৭ এপ্রিল) সকালে মারা যান তিনি।

খবর পেয়ে দুপুরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিকালে নিহত গৃহবধুকে জানাজা শেষে তার স্বামীর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে । পারভিন আক্তার একই এলাকার দিনমজুর স্বপনের স্ত্রী ও ৪ সন্তানের জননী এবং চরপাতা গ্রামের কৃষক মজিবুল হকের মেয়ে।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (৭এপ্রিল) উপজেলার চরমোহনা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডস্থ বিশ্বাসের বাড়িতে। নিহত ফাতেমা মৃত্যুতে দরিদ্র কৃষক পরিবার ও স্বজনদের মাঝে শোক বিরাজ করছে।

নিহতের স্বজনদের ভাষ্যমতে, গত সোমবার (২৯ মার্চ- শবেবরাত) গৃহবধু ফাতেমা তাদের জন্য হালুয়া-রুটি তৈরি করেন। কিন্তু ছেলে ফরহাদ অভিমান করে হালুয়া না খাওয়ায় অভিমানে নীজ কক্ষে গিয়ে বিষপান করলে সে মাটিতে লুটে পড়ে ফাতেমা। পরে তাকে উদ্ধার করে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ৩দিন ও লক্ষ্মীপুর উপশম হাসপাতালে ৩দিন চিকিৎসার পর বাড়ীতে এনে চিকিৎসা চলছিলো। অবশেষে বুধবার তার মৃত্যু হয়। এসময় নিহতের ছেলে ফরহাদের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ সম্পর্কে নিহতের আত্মীয়-স্বজনরা কথা বলতেও নারাজ ।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, আত্নহত্যা করা গৃহবধু ফাতেমা বেগমের বিষয়ে কোন অভিযোগ না থাকায় স্বজন ও গ্রামবাসীর অনুরোধে দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

Previous articleসাপাহারে বিবাদমান পুকুর নিয়ে সংঘর্ষে দু’পক্ষের আহত ১৩
Next articleসোনারগাঁওয়ে হেফাজতের তান্ডবে ভাংচুর পরিদর্শনে আ’লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।