বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বরিশালের মুলাদীতে হাসপাতালে প্রবেশ করে রোগীদের কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার বিকাল সাড়ে ৫টায় মুলাদী হাসপাতালের জরুরী বিভাগে দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়ে নারীসহ ৩জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাতœক জখম করে। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরধরে হামলায় আহতরা মুলাদী হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসলে প্রতিপক্ষরা পুনঃরায় তাদের ওপর এ হামলা চালায়। জানাগেছে উপজেলার মুলাদী সদর ইউনিয়নের খালাসীরচর গ্রামের সেকান্দার বেপারী ও আলতাফ বেপারীর সাথে জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। কয়েক দফা সালিশ বৈঠক শেষে সালিশরা বুধবার সীমানা নির্ধারণ শুরু করেন। সীমানা পিলার স্থাপনের সময় আলতাফ বেপারী ও তার পুত্র রাকিব বেপারীর নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত সেকান্দার বেপারীর লোকজনের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলায় সেকান্দার বেপারীর ছেলে এমদাদুল, ভাই ইউনুছ বেপারী, মোকলেছ বেপারীর স্ত্রী শিফাসহ বেশ কয়েকজনকে মারাতœক আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে মুলাদী হাসপাতালে নিয়ে আসলে রাকিব বেপারী রামদা ও লাঠিসোটা নিয়ে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে হামলা চালিয়ে পুনঃরায় এমাদাদুল বেপারীকে কুপিয়ে হাতের রগ কর্তন করে এবং ইউনুছ ও শিফাকে পিটিয়ে হাসপাতাল থেকে চলে যেতে বলে। এসময় হাসপাতালের কয়েকজন দর্শনার্থীকে মারধর করে হামলাকারীরা। সংবাদ পেয়ে মুলাদী থানা পুলিশ হাসপাতালে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এব্যাপারে মুলাদী থানা অফিসার ইনচার্জ এস এম মাকসুদুর রহমান জানান, হাসপাতালে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলেই অপরাধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleলক্ষ্মীপুরে পিকআপ-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২
Next articleরফিকুল মাদানী ফের ৭ দিনের রিমান্ডে
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।