এসকে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় নোবেল করোনাভাইরাস এর দ্বিতীয় ঢেউয়ে কারনে শ্রমিক সংকটে পড়েছে কৃষকরা। মাঠ জুড়ে পরে রয়েছে বোরো ধান । ওইসব কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছে যুবলীগের নেতাকর্মীরা। রবিবার সকাল থেকে দুপুর দুপুর পর্যন্ত প্রখর রোদে উপজেলার মহিপুর ইউনিয়নের বিপিনপুর গ্রামে আব্দুল আজিজের ১০ বিঘা জমির বোর ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে যুবলীগর নেতাকর্মীরা। মহিপুর থানা যুবলীগর আহায়ক মিজানুর রহমান বুলেটের নেতত্ব যুবলীগ নেতা ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম,সুমন হাওলাদার,মনির হাওলাদার,সিদ্দিক মোল্লাসহ প্রায় ৫০ জন নেতাকর্মী বোর ধান কাটায় অশং গ্রহন করে।
কৃষক আব্দুল আজিজ বলন, এ বছর বোর ধান চাষের জন্য আবহাওয়া মাটেও অনুকূল ছিলনা। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত কোন বৃষ্টির দেখা মেলেলি। পুরা মৌসুম জুড়ে পুকুর,খাল আর বিলের পানির উপর নির্ভর করত হয়েছে। এর পরে ক্ষেতর ধান পেকে যায়। দেশে করোনার কারনে ক্ষেতের ধান কাটার জন্য শ্রমিক না পাওয়ায় তিনিদুশ্চিন্তায় পড়েন। রবিবার সকালে মহিপুর থানা যুবলীগর যুবলীগের নেতাকর্মীরা আমার ক্ষেতের ধান কেটে বাড়ির উঠান পৌঁছে দিয়েছেন ।
এ বিষয় মহিপুর থানা যুবলীগর আহবায়ক মিজানুর রহমান বুলেট বলন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা দেশের কৃষকের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সকল সহযাগী সংগঠনকে নির্দেশ করেছেন। বাংলাদশ যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজল শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাসান খান নিখিলের অহবান আমরা যুবলীগর নেতা-কর্মীরা অসহায় কৃষকের পাশ দাঁড়িয়ছি। তিনি আরও বলেন, নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন জায়গা থেকে তথ্য নিচ্ছি। যেখানেই কৃষকরা সমস্যায় পড়বেন সেখানই আমরা কৃষকদের সহযাগিতায় মাঠে নামবো।

Previous articleসুন্দরগঞ্জে নারী ইউপি সদস্যকে মারপিট, গ্রেপ্তার ২
Next articleঠাকুরগাঁওয়ে ত্রাণের দাবিতে ইজবাইক শ্রমিকদের বিক্ষোভ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।