এস কে রঞ্জন: বিশ্ব সমুদ্র দিবসে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সৈকতে পরিচ্ছন্নতার অভিযান চালানো হয়েছে। ওয়ার্ল্ড ফিস বাংলাদেশ’র ইকোফিস-২ প্রকল্পর আওতায় একটি বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে ৮ জুন মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সৈকতে পরিছন্নতা কার্যক্রম চালানো হয়। পরিচ্ছন্মতা অভিযান কালে সৈকতের জিরো পয়েন্ট থেকে পূর্বদিকের ঝাউবন এলাকা এবং পশ্চিম শুটকি পল্লী পর্যন্ত প্রায় দুই কিঃমিঃ এলাকার সকল অপচনশীল বর্জ্য অপসারণ করা হয়। পরে কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে বিশ্ব সমুদ্র দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রেসক্লাব সভাপতি নাসির উদ্দিন বিপ্লবের সভাপতিত্বে বিশ্ব সমুদ্র দিবস সমুদ্র দূষন রোধে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানানো হয়।
এসময় বক্তব্য রাখেন ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের পরিদর্শক মোঃ মিজানুর রহমান, ওয়ার্ল্ড ফিস এর পটুয়াখালী জেলার কর্মরত ইকাফিস-২ প্রকল্পর সহযোগী গবেষক মোঃ জামাল উদ্দিন ও সহকারী গবেষক সাগরিকা স্মৃতি, টোয়াকের প্রেসিডেন্ট রুমান ইমতিয়াজ তুষার ও সেক্রটারী মো. আনোয়ার হোসেন আনু প্রমুখ।
এ সময় বক্তারা বলেন, নদীর দূষিত পানি ও কলকারখানার বর্জ সমুদ্রে গিয়ে মিলিত হচ্ছে। এত সমুদ্রের পানি দূষিত হচ্ছে মানুষের ব্যবহ্নত প্লাস্টিকসহ বিভিন্ন পদার্থ সমুদ্র ফেলা হচ্ছে। এর ফলে সমুদ্রের পরিবেশের ভারসাম্য হারিয়ে যাচ্ছে। মারা যাচ্ছে সমুদ্রের নানা প্রজাতির সামুদ্রিক প্রানী ও জীব বচিত্র। সমুদ্রের পানির উচ্চতা বেড়ে গেছে। তাই সমুদ্রের পানি দূষণ রোধ এবং সমুদ্রের জীববচিত্র রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসার আহবান করেন বক্তারা

Previous articleভাড়া বাসায় ৬ মাস ঘর সংসার করার পর স্ত্রীর মর্যাদার দাবীতে অর্ধাহারে অনাহারে কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী
Next articleঈশ্বরদীতে স্কুলছাত্রের আবিস্কৃত প্লান্ট থেকে কম খরচে অক্সিজেন উৎপাদন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।