আব্দুদ দাইন: কর্তৃপক্ষের বিনা অনুমতিতে আসন্ন ঈদ উল আজহা উপলক্ষে পৌর সদরে অবস্থিত পাবনার সাঁথিয়া সরকারি কলেজ মাঠে গবাদিপশুর হাট বসানোর প্রস্তুতি চলছে। এ নিয়ে ফুঁসে উঠেছে কলেজের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। তারা ঘোষণা দিয়েছে কলেজ মাঠে পশুরহাট বন্ধ করা না হলে শিক্ষার্থী ও জনসাধারনকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ করা হবে।

শিক্ষার্থীরা জানায় করোনার কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এমনিতেই শিক্ষার্থীরা হাঁফিয়ে উঠেছে। শিক্ষার্থীরা ও তরুন যুবারা প্রতিদিন এই মাঠে খেলাধুলা করে। এক্ষেত্রে মাঠ দখল করে পশুর হাট বসাতে গিয়ে বাঁশ খুঁটি পুঁতে খেলার মাঠ নষ্ট করা হচ্ছে। সেখানে হাট বসানো হলে গবাদি পশুর মলমুত্র থেকে গ›ধ বের হবে যাতে পরিবেশ দূষিত হবে। কলেজ মাঠে গরুর হাট বসানোর প্রস্তুতির ছবি ফেসবুকের গ্রুপ পেজে পোস্ট হওয়ার পর সোশাল মিডিয়ায় রীতিমতো সমালোচনার ঝড় উঠেছে । কলেজের অধ্যক্ষ(ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আলী জানান, কলেজ মাঠে পশুর হাট বসানোর ব্যাপারে তাকে কিছুই জানানো হয় নাই বা কারো কোন অনুমতি পত্র দেখাতে পারেনি। পশুর হাট বসালে কলেজের এ্যাসাইনমেন্টের কার্যক্রম ও অনলাইন পাঠদান কাজে চরম প্রতিব›ধকতা সৃষ্টি হবে। হাট বসানো বন্ধের জন্য তিনি কলেজের গভর্র্নিং বডির সভাপতি সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম জামাল আহমেদ বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ইউএনও সাঁথিয়া জানান, কলেজের খেলার মাঠ দখল করে কোন পশুর হাট বসতে দেয়া হবেনা। বাঁশ খুঁঠি ওঠানোর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। বোয়াইলমারী হাটের ইজারাদার আলমগীর হোসেনকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, কলেজমাঠে পশুর হাট বসানোর উদ্যোগ নিয়েছিলাম

Previous articleজয়পুরহাটে আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
Next articleহারিয়ে যাওয়ার ২০ বছর পর পরিবারকে ফিরে পেল শাহনাজ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।