বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর সদর উপজেলায় পারিবারিক কলহের জেরে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। ওই গৃহবধূ আত্মহত্যার জেরে তার স্বজনেরা তাকে হত্যার অভিযোগ তার স্বামীকে আটকে রেখে বেধড়ক মারধর করেছে।

নিহত ফারহানা আক্তার প্রিয়াংকা (২৬) উপজেলার নোয়াখালী ইউনিয়নের পশ্চিম চর উরিয়া গ্রামের সালা উদ্দিন পরানের মেয়ে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে ৪টার দিকে উপজেলা ৬নং নোয়াখালী ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম চর উরিয়া গ্রাম থেকে নিহত গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে, একই দিন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পরিবারের সদস্যদের অজান্তে সে নিজের বসত ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

স্থানীয়রা জানায়, প্রিয়াংকার স্বামী আক্তার উদ্দিন শাহীন (৩০) শ্বশুর বাড়ির পাশে একটি ঘরে স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করত। সে হাতিয়া উপজেলার সোনাদিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে। তার স্ত্রী আত্মহত্যা করলে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন অভিযোগ তুলে তাকে তার স্বামী হত্যা করে মরদেহ ঝুলিয়ে রাখে। এই অভিযোগে নিহত গৃহবধূর পরিবারের সদস্যরা শাহীনকে বেধড়ক মারধর। পর পুলিশ খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। একই সাথে নিহতের স্বামীকে উদ্ধার করে পুলিশ পাহারায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দিচ্ছে।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.সাহেদ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, নিহতের স্বামী পুলিশ পাহারায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নিহতের পরিবার এ ঘটনায় শুক্রবার সকালে লিখিত এজহার দাখিল করবে বলে জানিয়েছে। লিখিত এজহার পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে।

Previous articleবেগমগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষণকারীকে ছেড়ে দেওয়ার ৭দিন পর ফের আটক করল পুলিশ
Next articleরায়পুরে বজ্রপাতে ১৯ মহিষের মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।