মারুফা মির্জা: সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে যমুনা নদীতে বালু উত্তোলন অব্যাহত থাকায় প্রশাসনের অভিযানে জরিমানাও অব্যাহত রয়েছে। স্থাণীয় প্রভাবশালীদের নেতৃত্বে চলা এ বালু উত্তোলনের সময় ড্রেজার মালিককে ধরে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

অর্থদন্ড প্রাপ্ত সাহেদ আলীর বাড়ি থানার বেতিল গ্রামে। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক চৌহালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মাহিদ আল হাসান এই অভিযান পরিচালনা করেন। ম্যাজিস্ট্রেট মাহিদ আল হাসান ও স্থাণীয়রা জানান, গত দেড় মাস ধরে চৌহালী উপজেলাধীন এনায়েতপুর থানার সদিয়াচাঁদপুর ইউনিয়নের উড়াপাড়া, ইজারাপাড়া, মৌহালী সহ আশপাশ থেকে ২টি ড্রেজার দিয়ে বালু তুলে মজুদ ও বিক্রি করছিল স্থাণীয় একটি চক্র। এজন্য গত ১৭ জুন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদুর রহমানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ১৩ জনকে আটক করে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করে। এর কয়েক দিন পর আবারো একই ভাবে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন শুরু করে তারা। এলাকাবাসী বার-বার নিষেধ করলেও তারা মানছিল না। এ অবস্থায় রোববার দুপুরে চৌহালী উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মাহিদ আল হাসানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালায়। তখন ড্রেজার মালিক সাহেদ আলী সহ ৪ জনকে গ্রেফতার করে এনায়েতপুর থানায় এনে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এদিকে এনায়েতপুর থানার সদিয়া চাঁদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি সিরাজুল আলম মাস্টার জানান, যে ভাবে অভিযান চলছে এতে কর্নপাত করছেনা বালু দস্যুরা। এনায়েতপুর ঘাটে প্রায় ৭০/৮০ লাখ টাকার বালু মজুদ রয়েছে। তা জব্দ করা হলে তারা ভয় পেত। বন্ধ হতো বালু উত্তোলন। এছাড়া সারা বছরই বালু তোলা হচ্ছে এখান থেকে। তাই বালু তোলা বন্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া উচিৎ। বিষয়টি নিয়ে চৌহালী উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মাহিদ আল হাসান জানান, অবৈধ ভাবে যমুনা থেকে বালু তুলতে দেয়া হবেনা। আবারো অভিযান চলবে।

Previous articleচান্দিনায় সড়ক ও জনপথের জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ
Next articleবাউফলে আলোচিত কিশোরীর বিয়ে: ধরাছোঁয়ার বাইরে দুই কাজী ও সাবেক চেয়ারম্যান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।