বাবুল আকতার: নওগাঁর সাপাহার সীমান্তে ভারত থেকে পুশইন করার পর ৮জন বাংলাদেশী নারী পুরুষকে আটক করে স্থানীয় সাপাহার থানায় সোপর্দ করেছে ১৬বিবিজি কোম্পানী হাপানিয়া বিওপি ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা।

মঙ্গলবার ভোরে ভারতীয় বিএসএফ সদস্যরা তাদেরকে সাপাহার সীমান্ত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে পুশইন করে বলে তারা জানান। সাপাহার উপজেলার হাপানিয়া বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েব সুবেদার মো: আজিজুল ইসলাম এর সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন যে, মঙ্গলবার অনুমান ভোর ৪টার দিকে হাপানিয়া সীমান্তের হরিণ মাঠ নামক এলাকা হতে টহলরত বিজিবি সদস্যরা ভারত থেকে পুশইন হয়ে আসায় ব্যক্তিদর আটক করে সকালে স্থানীয় থানায় সোপর্দ করে। বেশ কিছুদিন পূর্বে আটককৃত ব্যক্তিরা একত্রে বাংলাদেশের সাতক্ষীরা সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারত অভ্যন্তরে প্রবেশ করে বিএসএফ সদস্যদের হাতে আটকা পড়ে এবং ভারতীয় আইনে দমদম জেলখানায় জেল হাজত খাটার পর ছাড়া পেলে মঙ্গলবার ভোরে বিএসএফ সদস্যরা তাদেরকে সাপাহার সীমান্ত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশ অভ্যন্তরে পুশ ইন করে দেয় বলে বিজিবিরা জানান। বিজিবির হাতে আটককৃত ব্যক্তিরা হচ্ছেন বাংলাদেশের সাতক্ষীরা জেলার কালীগঞ্জের আ: রহমান গাজীর ছেলে মো: জহুর আলী গাজী (৩৭), শ্যামনগরের শামসুর রহমান গাজীর ছেলে মো: হাসান আলী (৩২), শ্যামনগরের আবু হাসানের স্ত্রী মোসা: নুরনাহার বেগম (২৭) একই থান ও জেলার জহর আলী গাজীর মেয়ে মো: সালমা পারভীন (৩০)। জয়পুর হাট জেলার পাঁচবিবির মো: আতিয়ার রহমানের ছেলে মো: শরিফুল ইসলাম (২৭), নড়াইল জেলার কালিয়া থানার মো: আলিফ খালাসীর মোয়ে মোসা: সেনিয়া খাতুন (২৫), ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ারী থানার জাহাঙ্গীর আকন্দ এর মেয়ে মোসা: সাদিয়া খন্দকার ইভা (২৪), কুড়ীগ্রাম জেলার নাগেশ^রী থানার আবুল হোসেন এর মেয়ে মোসা: পপি আক্তার (২১)। আটককৃতদের বিরুদ্ধে ১৯৫২সালের কন্ট্রোল অফ এন্ট্রি এ্যাক্ট এর ৪ ধারায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ আকটকৃতদের নওগাঁ কোর্টে চালান করেছে বলে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) আল-মাহমুদ জানিয়েছেন।

Previous articleরংপুরে করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৬১৮
Next articleপ্যারাসিটামলে নয়, নাপায় আসক্তি: ঈশ্বরদীতে নাপা সংকট
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।