বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালী জেলা কারাগারে হত্যা মামলায় গ্রেফতার আব্দুর রব ওরফে বাবলু ড্রাইভার (৬০) নামের এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) ভোরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। মৃত আব্দুর রব বাবুল নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের সাদেকপুর গ্রামের বাসিন্দা। এর আগে, গত (২৩ ফেব্রুয়ারী) নিজের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার মিনাকে (৫৫) কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যার ঘটনায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
নোয়াখালী জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায় (সুপার) ফণী ভূষণ দেবনাথ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, গত (২৪ ফেব্রুয়ারী) থেকে বাবুল নোয়াখালী জেলা কারাগারে ছিল। তিনি আগে থেকেই ডায়াবেটিস রোগের ইনসুলিন নিতেন। উচ্চমাত্রার ডায়াবেটিস ও দুই ফোলা অবস্থায় গত (২৮ জুন) প্রথমে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে আজ ভোর ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
উল্লেখ্য, চলতি বছরের গত (২৩ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১০টার দিকে নোয়াখালীর সেনবাগের কাবিলপুর ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়ার্ডের সাদেকপুর গ্রামের ওয়ালী ভূঁইয়া বাড়িতে তাহমিনা আক্তার প্রকাশ মিনাকে ( ৫৫) গলা কেটে জবাই করে হত্যা করে তার স্বামী আবদুর রব বাবুল । নিহত গৃহবধূর পিতার বাড়ি ছিল রাজশাহীতে। তিনি তুহিন (৩০) ও তারেক (২৮) দুই সন্তানের জননী। স্থানীয়রা জানায়,ঘাতক আবদুর রব ৪ মাস আগে সৌদি আরব থেকে দেশে আসে টাকা-পয়সার হিসাব নিকাশ নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে দ্বন্দ্বের জেরে এই হত্যাকান্ড ঘটে।

Previous articleসিরাজগঞ্জের প্রথম ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধন
Next articleবাউফলে অক্সিজেনের অভাবে করোনা রোগীর মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।