জয়নাল আবেদীন: রংপুর বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে করোনা সংক্রমিত আরও ৫শ১১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে গেল ১২দিনে বিভাগে করোনায় প্রাণ হারালো ১শ৯২ জন।

তবে গত দুদিনের তুলনায় বিভাগে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের হার কমেছে।বৃহস্পতিবার দুপুরে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) আবু মো. জাকিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান, বুধবার সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ঠাকুরগাঁও জেলার ৩, কুড়িগ্রামের ৩, নীলফামারীর ২, রংপুরের ২, পঞ্চগড় ও গাইবান্ধার ১ জন করে রয়েছেন।একই সময়ে বিভাগে ১ হাজার ৯শ৬৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫শ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ঠাকুরগাঁওয়ের ৮৬, দিনাজপুরের ৮৪, রংপুরের ৮৩, নীলফামারীর ৮৩, পঞ্চগড়ের ৫৬, কুড়িগ্রামের ৫৬, গাইবান্ধার ৪৩ ও লালমনিরহাটের ২০ জন রয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় আক্রান্তের হার ২৬ দশমিক ৩ শতাংশ।নতুন করে মারা যাওয়া ১২ জনসহ বিভাগে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭শ১১ জনে। এর মধ্যে দিনাজপুর জেলার ২শ৩৬ জন, রংপুরের ১শ৪২, ঠাকুরগাঁওয়ের ১শ৩৪, নীলফামারীর ৫০, লালমনিরহাটের ৪৩, কুড়িগ্রামের ৩৮, পঞ্চগড়ের ৩৪ ও গাইবান্ধার ৩৪ জন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪শ৩৩ জন।এছাড়াও নতুন শনাক্ত ৫শ১১জনসহ বিভাগে ৩৪ হাজার ৫শ২২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে দিনাজপুর জেলায় ১০ হাজার ৭শ০৯ জন, রংপুরের ৭ হাজার ৬শ২১ জন, ঠাকুরগাঁওয়ের ৪ হাজার ৯শ৪৪ জন, গাইবান্ধার ২ হাজার ৮শ৮১ জন, নীলফামারীর ২ হাজার ৬শ৪৯ জন, কুড়িগ্রামের ২ হাজার ৫শ১৪ জন, লালমনিরহাটের ১ হাজার ৯শ১১ জন এবং পঞ্চগড়ের ১ হাজার ৮শ০৪ জন রয়েছেন।করোনাভাইরাস শনাক্তের শুরু থেকে বুধবার পর্যন্ত রংপুর বিভাগে ১ লাখ ৮২ হাজার ৭শ৮১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। বিভাগের আট জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে দিনাজপুর, রংপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলায়। এছাড়া ভারতীয় সীমান্ত ঘেঁষা জেলাগুলোত বেড়েছে শনাক্ত ও মৃত্যু।

Previous articleরংপুরে ঈদ উপহার পেয়ে ১১শ২০ কর্মচারির মুখে হাসি
Next articleবেনাপোল ও ভারতের রেলপথে পণ্য আমদানির রেকর্ড
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।