বাংলাদেশ প্রতিবেদক: : মুলাদীতে দুর্বৃত্তদের হামলায় ৪ শিক্ষক আহত হয়েছেন। আজ রোববার বেলা ১১টায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের দড়িচরলক্ষ্মীপুর (বজায়শুলি) গ্রামের মাস্টার মোশারফ হোসেন হাওলাদারের বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

সালিশ বৈঠকের নামে ডেকে নিয়ে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আহতরা। জানা গেছে, দীর্ঘ দিন ধরে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোশারফ হোসেন হাওলাদারের সাথে একই বাড়ির নূরুল ইসলাম হাওলাদারের বিরোধ চলে আসছিলো। রোববার নূরুল ইসলামের নিকটতম আতœীয় ওমর ফারুক বিরোধ মিমাংশার কথা বলে মোশারফ হাওলাদার ও তার ছেলেদের ডেকে নেন। মোশারফ হোসেন হাওলাদার জানান, মধ্যস্থতার কথা বলে ওমর ফারুক তাদের ডেকে নিয়ে নূরুল ইসলাম হাওলাদারের পক্ষ নিয়ে কথা বলা শুরু করেন। এতে তিনি ও তার ছেলেরা সালিশ বা মধ্যস্থতা না মেনে চলে আসতে চান।এতে নূরুল ইসলামের ছেলে সাব্বির ও তার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে মোশারফ হাওলাদারের ছেলে প্রভাষক রফিকুল ইসলামকে কুপিয়ে আহত করে। ওই সময় তাকে রক্ষা করতে গেলে হামলাকারীরা মোশারফ হোসেন, তার ছেলে মাস্টার শফিকুল ইসলাম, স্ত্রী শিক্ষিকা সামছুন্নাহারকে পিটিয়ে আহত করে। আহতদের ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এঘটনায় মোশারফ হোসেন হাওলাদার বাদী হয়ে মুলাদী থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। এব্যাপারে মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম মাকসুদুর রহমান জানান, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleপাঁচবিবিতে নদীতে সেলফি তুলতে গিয়ে কিশোরের মৃত্যু
Next articleদাফনের ১১১ দিন পর কবর থেকে গৃহবধূর লাশ উত্তোলন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।