আহাম্মদ কবির: সুনামগঞ্জ তাহিরপুর সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে অবৈধ ভাবে আমদানিকৃত প্রায় তিন লক্ষাধিক টাকা মুল্যের কয়লা ও ৩টি স্টীলবডি নৌকা আটকের পর রহস্যজনক কারণে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ।

আজ বৃহস্পতিবার( ২৩,সেপ্টেম্বর) ভোররাতে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের সমসার হাওরের পাটলাই নদী সংলগ্ন স্যুইচ গেইট নামক স্থানে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় তথ্যসুত্রে জানা যায় প্রতিদিনের ন্যায় গতকাল রাতে উপজেলা সীমান্তের লালঘাট নামক এলাকা দিয়ে ভারত থেকে অবৈধ ভাবে চোরাই পথে কয়লা আমদানি করে,উপজেলার পাটলাই নদী দিয়ে পাচাঁর করার সময়,তাহিরপুর কয়লা আমদানিকারক সমিতির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আবুল কায়ের এর নেতৃত্বে নিয়োগ প্রাপ্ত পাহাড়াদার(সেন্ট্রিরা),আজ ভোররাতে সমসার হাওর পাড়ের স্যুইচ গেইট সংলগ্ন পাটলাই নদীতে চোরাই কয়লা বোঝাই তিনটি স্টীলবডি নৌকা আটক করে,রহস্যজনক কারণে ছেড়ে দেয়।

জানাযায় এর পূর্বে গত (১৪সেপ্টেম্বর)ভোরে চারাগাঁও সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে আমদানিকৃত ১৪মেঃটন চুনাপাথর ইঞ্জিনের নৌকা বোঝাই করে উপজেলার আনোয়ারপুর এলাকায় পাচাঁর করার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুনাপাথর ও কয়লা আমদানি কারক সমিতির পাহাড়াদার(সেন্টিরা)উপজেলার শ্রীপুর এলাকায় নৌকা বোঝাই পাথর সহ নৌকার মালিক ও মাঝি সোহেল মিয়াকে আটক করে অদৃশ্য কারণে ছেড়ে দেয়।

এ ব্যাপারে তাহিরপুর কয়লা ও চুনাপাথর আমদানি কারক সমিতির পাহাড়াদার (সেন্টি)সোহেব মিয়া জানান আমি কয়েকদিন যাবৎ পারিবারিক ঝামেলায় বাড়িতে আছি নদীতে যাইনি,কিন্তু আমি শুনেছি কয়লা বোঝাই নৌকা আটক করেছে এরপর কি হয়েছে আমার জানা নেই,কনকন মিয়া ওই দিন দায়িত্বে ছিল উনি বলতে পারবে।

একই ভাবে কয়লা ও চুনাপাথর আমদানি কারক সমিতির পাহাড়াদার (সেন্টি) ছয়ফুল মিয়া বলেন, আমাদের দুইটি গ্রুপ পালাক্রমে কেউ রাতে কেউ দিনে দায়িত্ব পালন করতে হয়,ওই রাতে আমি ছিলাম না শুনেছি কয়লা নৌকা আটক করেছে, এর পর কি হয়েছে জানি না, গত কয়দিন আগে আমি অবৈধভাবে পাচাঁরকৃত চুনাপাথর নৌকাসহ আটক করেছিলাম ।

এব্যাপারে কয়লা ও চুনাপাথর আমদানি কারক সমিতির পাহাড়াদার (সেন্টি)সর্দার কনকন মিয়ার কাছে জানতে চাইলে উনি কয়লা বোঝাই তিনটি নৌকা আটকের কথা স্বীকার করে বলেন এগুলো বৈধ পথে আমদানিকৃত কয়লা চালানে টাকার অংক ছিলনা বলে আটক করা হয়েছিল, কোন ডিপো হতে কয়লা গুলো এনেছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে উনি বলেন এগুলো তোমরা জানার কি দরকার এগুলো সমিতির বিষয়,এর পরবর্তী সময়ে উনি অস্বীকার করে বলেন দেশ কয়লা আছে কয়লা নিয়ে যাবে আমরা পাথরের বিষয়টি দেখি কয়লা সহ নৌকা আটক হয়েছে কি-না আমি জানি না।

এ ব্যাপারে কয়লা ও চুনাপাথর আমদানি কারক সমিতির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও সেন্টি সমিতির সভাপতি আবুল খায়ের এর কাছে চোরাই কয়লা আটকের পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে উনি গণমাধ্যম কে জানান শুনেছি আমি আমারে সাবজাল কইছে, কিন্তু চুরির মাল আটক করে ছাইড়া দিছে এব্যাপারে জানতে চাইলে উনি বলেন ছাইড়া দিতনাতে কিতা করতো,কয়লা আটকাইয়া কিতা করতো, এমনেই দেশ কয়লা নাই,।সব চুরির মাল আমরার দেখত হইবো পুলিশে দেখবো।

তাহিরপুর থানা পুলিশ পরিদর্শক( তদন্ত)বলেন বিষয়টি আমরা জানি না আপনার মাধ্যমে জানতে পারলাম তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Previous article‘ক্ষমা করো’ লিখে পাবিপ্রবির শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা
Next articleভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরেছে দুই নারী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।